Buddhadeb Bhattacharjee: শারীরিক অবস্থার সামান্য উন্নতি ! কথা বলছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

Buddhadeb Bhattacharya

Buddhadeb Bhattacharjee: রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা ৯২ শতাংশ। তাঁর শরীরে হাইপোগ্লাইসেমিয়া পাওয়া গেছে।

  • Share this:

    #কলকাতা: প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের (Buddhadeb Bhattacharjee) শারীরিক অবস্থার সামান্য উন্নতি হয়েছে আজ। মাঝেমধ্যে তাঁকে বাইপ্যাপ সাপোর্ট দিতে হচ্ছে। ৩ লিটার অক্সিজেন প্রয়োজন হচ্ছে। রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা ৯২ শতাংশ। তাঁর শরীরে হাইপোগ্লাইসেমিয়া পাওয়া গেছে। অর্থাৎ রক্তে শর্করার মাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকটাই কম। এখন মাঝেমধ্যে কথাবার্তা বলছেন তিনি। হৃদস্পন্দন মিনিটে ৬২। আগের থেকে বেশ কিছুটা সুস্থ বোধ করছেন তিনি।

    গত মঙ্গলবার সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত হন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য (Buddhadeb Bhattacharjee )। স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্যকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও জেদে অনড় বুদ্ধদেবের বাড়িতে চিকিৎসা চলছিল। কিন্তু সোমবার রাত থেকেই তাঁর অবস্থার অবনতি হওয়ায় হাসপাতালে নিয়ে আসতে বাধ্য হন আত্মীয়রা। সে সময় তাঁর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা ৮০-র নীচে নেমে গিয়েছিল। যা স্বাভাবিক ভাবেই সকলের চিন্তার কারণ হয়েছিল। করোনায় অক্সিজেনের মাত্রা ঠিক না থাকলে সব থেকে সমস্যা তৈরি হচ্ছে। হাসপাতালে আনার পরেই সব রকম পরীক্ষা ও চিকিৎসা করা শুরু করেন ডাক্তাররা।  কেন এতটা শারীরিক অবস্থা খারাপ হল বুদ্ধবাবুর, কোভিড নাকি পুরনো রোগ সিওপিডি-র সমস্যা, তা পরীক্ষা করা হয়। গত ডিসেম্বরেই বুদ্ধদেববাবু সিওপিডির সমস্যায় উডল্যান্ডস হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। দেখা গিয়েছিল তাঁর কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা অস্বাভাবিক বেড়ে যায়। এবার তা অতটা বাড়েনি।

    চিকিৎসরা জানাচ্ছেন, যেহেতু স্টেরয়েড দেওয়া হচ্ছে তাই দিনে তিনবার করে সুগার টেস্ট করা হবে। ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সমস্যা তৈরি হতে পারে , সেই কারণেই বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা অভয় দিচ্ছেন, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কথা ভেবেই চিকিৎসা হবে।‌ এর আগে রিপোর্ট এবং বর্তমান রিপোর্ট মিলিয়ে দেখা হচ্ছে, তারপরেই পদক্ষেপ করবেন চিকিৎসকরা। তবে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী (Buddhadeb Bhattacharjee) কথা বলছেন হালকা। অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি অ্যান্টিবায়োটিক স্টেরয়েড চলছে। তাঁর জ্ঞান রয়েছে। এছাড়াও জানা গিয়েছে, শুকনো কাশি রয়েছে তাঁর। তবে রাতে ভালো ঘুমিয়েছেন তিনি। এখন আর রাইস টিউবের মাধ্যমে খাবার দিতে হচ্ছে না তাঁকে।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: