রাজ্যজুড়ে জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতি প্রত্যাহারের আর্জি স্বাস্থ্যসচিবের

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jun 16, 2019 07:48 PM IST
রাজ্যজুড়ে জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতি প্রত্যাহারের আর্জি স্বাস্থ্যসচিবের
Photo : News18
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jun 16, 2019 07:48 PM IST

#কলকাতা: দফায় দফায় বৈঠকের পর কর্মবিরতি প্রত্যাহারের আর্জি জানালেন স্বাস্থ্যসচিব। কিন্তু, তাতেও বুধবার রাত পর্যন্ত অচলাবস্থা কাটল না। নিরাপত্তা-সহ একগুচ্ছ দাবিতে, পরিষেবা শিকেয় তুলে অবস্থান বিক্ষোভে অনড় এনআরএসের জুনিয়র চিকিৎসকরা।

কখনও নবান্ন, কখনও স্বাস্থ্যভবন। বুধবার দফায় দফায় বৈঠক। বৈঠক শেষে, জুনিয়র ডাক্তারদের আন্দোলন প্রত্যাহারের আর্জি....তবু কাটল না অচলাবস্থা।

রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন হাসপাতালে যে অচলাবস্থা, তার উৎসস্থল এনআরএস। সোমবার রাতে এই এনআরএস রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়। চিকিৎসায় গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগে, রোগীর পরিবার ও জুিনয়র চিকিসকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। হামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার থেকে এই হাসপাতালের আউটডোর, এমারজেন্সি সব বন্ধ। বুধবারও ছবিটা পাল্টায়নি।

এ দিন এনআরএসের এমারজেন্সি গেটের কাছে ছাউনি বেঁধে অবস্থান বিক্ষোভ করেন জুনিয়র ডাক্তাররা। পাশে পান বিভিন্ন হাসপাতালের সিনিয়র চিকিৎসকদেরও।

আউটডোর বন্ধ। সকাল থেকে এমারজেন্সিও বন্ধ। রোগীরা এসেছেন। ফিরে গেছেন। এনআরএসের সংক্রমণ দেখা গিয়েছে রাজ্য জুড়ে। বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে গিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। এনআরএসে অবশ্য যত সময় গড়িয়েছে, ততই জুনিয়র চিকিৎসকদের সমর্থনে পড়েছে পোস্টার।

Loading...

আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে যেতে রাজ্যের সমস্ত সরকারি হাসপাতালে জুনিয়র ডাক্তারদের ইউনিট তৈরির সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাঁদের পাশে দাঁড়িয়ে এনআরএস থেকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পর্যন্ত মিছিলও করেন চিকিৎসকরা।

বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে অচলাবস্থা কাটাতে এ দিন নবান্নে দফায় দফায় বৈঠক হয়। মুখ্য ও স্বাস্থ্যসচিবকে নিয়ে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপর স্বাস্থ্যসচিব নবান্ন থেকে বেরিয়ে স্বাস্থ্যভবনে যান। সেখানেও দফায় দফায় বৈঠক করেন। বৈঠকে ছিলেন স্বাস্থ্যপ্রতিমন্ত্রী, স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিকর্তা এবং স্বাস্থ্য দফতরের শীর্ষ আধিকারিকরা। বৈঠক শেষে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়,গোটা বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রী দেখছেন। প্রয়োজন মতো নির্দেশও দিচ্ছেন। প্রেস বিবৃতিতে, পরিষেবা শিকেয় তুলে জুনিয়র চিকিৎসকদের আন্দোলন প্রত্যাহারেরও আর্জি জানান স্বাস্থ্যসচিব। মুখ্যমন্ত্রী নিজে মনিটরিং করছেন। দেখা যাক কী হয়।

First published: 07:48:19 PM Jun 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर