• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • HEALTH BULLETIN OF MAMATA BANERJEE FROM SSKM MEDICAL BOARD SB

সব টেস্টের রিপোর্ট এল মমতার, কী বলছে SSKM-এর মেডিক্যাল বোর্ড? জানুন...

বৃহস্পতিবার SSKM-এর ৬ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডের তরফে জানানো হয়, মুখ্যমন্ত্রীর বাঁ পায়ে ফ্র্যাকচার রয়েছে। তাঁর সমস্ত ধরনের রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টও এসেছে বলে জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার SSKM-এর ৬ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডের তরফে জানানো হয়, মুখ্যমন্ত্রীর বাঁ পায়ে ফ্র্যাকচার রয়েছে। তাঁর সমস্ত ধরনের রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টও এসেছে বলে জানানো হয়েছে।

  • Share this:

    #কলকাতা: বুধবার সন্ধ্যায় নন্দীগ্রামের বিরুলিয়া বাজারে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোট পাওয়ার ঘটনায় উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঘাত গুরুতর। এদিন সকালেও তেমনই জানিয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। নন্দীগ্রাম থেকে গ্রিন করিডর করে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসার পর রাতেই মমতার পায়ে প্লাস্টারের ছবি প্রকাশ্যে আসে। তখনই অনেকের আশঙ্কা হয়েছিল, মুখ্যমন্ত্রীর চোট গুরুতর। এরপর বৃহস্পতিবার SSKM-এর ৬ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডের তরফে জানানো হয়, মুখ্যমন্ত্রীর বাঁ পায়ে ফ্র্যাকচার রয়েছে। তাঁর সমস্ত ধরনের রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টও এসেছে বলে জানানো হয়েছে। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গিয়েছে।

    হাসপাতাল সূত্রে খবর, রক্তের রিপোর্টে দেখা গিয়েছে, মমতার শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা অনেকটা কমে গিয়েছে। বাঁ পায়ে ব্যথাও রয়েছে তাঁর। সেক্ষেত্রে আজ বিকেলেই ফের বৈঠকে বসছে মমতার জন্য গঠিত মেডিক্যাল বোর্ড। এদিন হাসপাতালের বেডে শুয়েই ভিডিও বার্তায় মমতা নিজের শারীরিক অবস্থার কথা জানিয়েছেন। একইসঙ্গে রাজ্যের নানা জায়গায় যে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে, সেই প্রেক্ষিতে মমতা সকলকে শান্ত থাকার অনুরোধও করেছেন।

    তবে, কতদিন পর্যন্ত মমতাকে হাসপাতালে থাকতে হবে, তা নিয়ে এখনই মুখ খুলতে চাননি মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্যরা। যদিও মমতা বলেছেন, একটু সামলে নিয়েই তিনি ফের প্রচারে নেমে পড়বেন। তবে, সেক্ষেত্রে হুইল চেয়ারে করেও তিনি দলীয় কর্মসূচীতে যাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

    যদিও দলনেত্রীর উপর 'আক্রমণের' দাবিকে হাতিয়ার করে রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি অব্যাহত রাখছে। বুধবারই মমতার চোট পাওয়ার পর বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল হুঁশিয়ারির সুরে বলেছেন, ভয়ংকর আন্দোলন হবে। বুধবার রাত থেকেই রাজ্যের বেশ কয়েকটি জায়গায় বিক্ষোভ প্রদর্শনও শুরু করেছেন তৃণমূল কর্মীরা। জেলায় জেলায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তৃণমূল কর্মীরা। রেল অবরোধ শুরু হয়েছে কদম্বগাছি স্টেশনে। উলুবেরিয়া, আরামবাগে টায়ার জ্বালিয়ে টায়ার জ্বালিয়ে পথ অবরোধ করেছেন তৃণমূল কর্মীরা। বিক্ষোভ দেখানো হয় মেদিনীপুর শহরেও। তৃণমূল-বিজেপি মারামারির অভিযোগ উঠেছে গতকালের ঘটনাস্থল নন্দীগ্রামেও।

    Published by:Suman Biswas
    First published: