• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বাংলা সিনেমার মরা খাতে GST-এর বোঝা, টলিউডের ভবিষ্যৎ আশঙ্কায়!

বাংলা সিনেমার মরা খাতে GST-এর বোঝা, টলিউডের ভবিষ্যৎ আশঙ্কায়!

বাংলা সিনেমার মরা খাতে GST-এর বোঝা, টলিউডের ভবিষ্যৎ আশঙ্কায়!

বাংলা সিনেমার মরা খাতে GST-এর বোঝা, টলিউডের ভবিষ্যৎ আশঙ্কায়!

বাংলা সিনেমার মরা খাতে GST-এর বোঝা, টলিউডের ভবিষ্যৎ আশঙ্কায়!

  • Share this:

    #কলকাতা:  মরার উপর খাঁড়ার ঘা ৷ প্রাদেশিক ভাষার ছায়াছবির ক্ষেত্রে ধার্য করা ২৮ শতাংশ জিএসটি-তে সিঁদুরে মেঘ দেখছেন প্রযোজকরা। বিশেষজ্ঞদের মতে এই পণ্য পরিষেবা করের বোঝা সহ্য করতে পারবে না বাংলা ছবি। এমনিতেই বেশ কয়েকবছর ধরে বাংলা ছবিতে লাভ তো দূর অস্ত্, লগ্নির টাকা উদ্ধার করতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে প্রযোজকদের। শুধু প্রযোজনাই নয়, জিএসটি-র প্রভাব পড়বে বাংলা ছবির সঙ্গে যুক্ত লক্ষ লক্ষ মানুষের রুটি রুজিতেও।

    পণ্য পরিষেবা করের আওতায় পড়বে বাংলা ছায়াছবিও। কিন্তু ২৮ শতাংশ হারে জিএসটি ধার্য করা হলে তার প্রভাবে চরম ক্ষতি হবে এই ইন্ডাস্ট্র্রির। রাজ‍্যজুড়ে মোট সিনেমা হলের সংখ‍্যা ২৪০। বছরে বাংলা ছবি মুক্তি পায় গড়ে ৮০টি। এই আশিটি ছবির মধ্যে হাতেগোনা ১০টি ছবি বানিজি‍্যক সাফল‍্যের মুখ দেখতে পায়। মাত্র কয়েকজন প্রযোজকই হল থেকে লগ্নির টাকা ঘে তুলতে পারেন।

    কেন্দ্রীয় সরকার প্রাদেশিক ছবির ক্ষেত্রে ‘গুডস এন্ড সার্ভিসেস ট‍্যাক্স’ বা জিএসটি ২৮ শতাংশ ধার্য করেছে। এই বিপুল করের বোঝা টানতে সক্ষম হবে না প্রডিউসার, ডিস্ট্রিবিউটার ও এক্সিবিটররা।

    এতদিন অবধি একশো টাকার টিকিটে নেট টিকিট মূল‍্য ছিল - ৯৫.৫০ টাকা সার্ভিস ট‍্যাক্স ছিল - ২.৫০ টাকা এবং রাজ‍্য সরকারের নির্ধারিত অ‍্যামিউজমেন্ট ট‍্যাক্স ছিল - ২টাকা ৷ এবার এই ২টাকা বেড়ে দাঁড়াবে ২৮টাকা

    টিকিটের নেট মূল‍্য অর্থ‍্যাৎ ৯৫.৫০টাকা ভাগ হয় প্রডিউসার, ডিস্ট্রিবিউটার ও এক্সিবিটরদের মধ‍্যে। তবে জিএসটি নির্ধারিত মূল‍্যে টিকিটের নেট দাম হবে

    একশো টাকার টিকিটে জিএসটি - ২৮ টাকা সার্ভিস ট‍্যাক্স - ২টাকা ফলে টিকিটের নেট মূল‍্য - ১০০ - ৩০ = ৭০ টাকা

    এই ৭০ টাকা ভাগ হবে তিনভাগে। সিংহভাগ প্রোডিউসার পেলেও ডিস্ট্রিবিউটার ও এক্সিবিউটরদের ভাগ তো কমবেই। বড় প্রোডাকশন হাউসগুলি এই মার সহ‍্য করলেও ছোট বা কম বাজেটের প্রোডিউসাররা ঘুরে দঁাড়াতে পারবেন না বলেই মনে করছেন ভেঙ্কটশ ফিল্মস্’এর মহেন্দ্র সোনি।

    শুধু প্রোডিউসর নয়, জিএসটি’তে ধাক্কা খাবে এক্সিবিটর বা হল মালিকরাও। পুরোনো সিঙ্গেল থিয়েটারগুলিকে রিভাইভ করার জন‍্য উদ‍্যোগ নিয়েছিল রাজ‍্য সরকার। তাতে রাজ‍্য সরকারের ২শতাংশ ট‍্যাক্স মুকুব করা হত। এই ট‍্যাক্স হলিডে হল মালিকরা ৪ থেকে ৫বছর অবধি পেতেন, ফলে সংরক্ষণের বেশ কিছু টাকা হলমালিকরা, সেখান থেকে ফেরত পেতেন। তবে এবার সেই ট‍্যাক্স হলিডের আর কোনও অবকাশ থাকছে না, ফলে পুরোনো হল পুনরুদ্ধারের কাজ আবারও বন্ধ হয়ে যাবে বলেই আশঙ্কা।

    শুধু বাংলা ছবি নয়, এই করের বোঝায় মার খাবে সমস্ত প্রাদেশিক ছবির বানিজ‍্যই। যেমন মহারাষ্ট্রের ছবি বা দক্ষিন ভারতের ছবিগুলিকে রাজ‍্য সরকারকে কোনও ট‍্যাক্স দিতে হত না। এবার তাদেরও ২৮ শতাংশ কর দিতে হবে কেন্দ্রীয় সরকারকে। এই বিষয়ে সোচ্চার হয়েছেন সাউথ সুপারস্টার কমল হসন।

    যদিও রাজ‍্য সরকার জিএসটি’র বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে আলোচনায় রয়েছে, তাও বাংলা ছবির ভবিষ‍্যত যে টলমল তা বেশ বোঝা যাচ্ছে।

    First published: