স্থগিত বিধানসভা, স্পিকারের অভিযোগের পাল্টা জবাব রাজ্যপালের

স্থগিত বিধানসভা, স্পিকারের অভিযোগের পাল্টা জবাব রাজ্যপালের
রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

রাজভবনে আটকে রয়েছে গণপিটুনি বিল৷ ২৯ তারিখ ওই বিল রাজভবনে পাঠানো হয়৷ ৩০ তারিখ ছুটি থাকায় ১ তারিখ বিলটি হাতে পান রাজ্যপাল৷ হাউজে বিল নিয়ে কী আলোচনা, তা জানতে চান রাজ্যপাল৷

  • Share this:

অরূপ দত্ত

#কলকাতা: বিলে রাজ্যপালের সই আটকে থাকায় বিধানসভা দু দিনের জন্য স্থগিত৷ মঙ্গলবার এমনই নজিরবিহীন ঘোষণা করেছেন বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এরপরই জবাব আসে রাজভবন থেকে৷ রাজভবন থেকে রাজ্যপাল জানান, এই অভিযোগে তথ্যগত ভুল রয়েছে৷ অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে সব বিষয় দেখা হয়৷ প্রতি দফতরের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত৷ সংশ্লিষ্ট দফতর থেকে সন্তোষজনক উত্তর মেলেনি৷ তাই জন্যই বিল আটকে৷

রাজভবনে আটকে রয়েছে গণপিটুনি বিল৷ ২৯ তারিখ ওই বিল রাজভবনে পাঠানো হয়৷ ৩০ তারিখ ছুটি থাকায় ১ তারিখ বিলটি হাতে পান রাজ্যপাল৷ হাউজে বিল নিয়ে কী আলোচনা, তা জানতে চান রাজ্যপাল৷ তাই আটকে গণপিটুনি প্রতিরোধ বিল৷ রাজভবনে আটকে রয়েছে আরও ৩টি বিল৷ আটকে রয়েছে তফশিলি জাতি-উপজাতি নির্যাতন প্রতিরোধ বিল, পুর আইন সংশোধনী বিল, পশ্চিমবঙ্গ লিফট এসকালেটর ও ট্র্যাভেলেটর বিল৷

এদিন স্পিকার বলেন, 'কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিল রাজভবনে রাজ্যপালের কাছে পাঠানো হয়েছিল, সেগুলো বিধানসভায় পৌঁছয়নি। তাই আগামী দু দিন সরকারের কোন বিজনেস নেই। তাই আগামী ২ দিন বিধানসভা স্থগিত রাখতে হচ্ছে।'

সোমবার বিধানসভায় আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক জানিয়েছিলেন, তাঁর দপ্তরে কোনও বিল পড়ে নেই। বিধানসভার কার্যসূচি স্থির করতে চলতি অধিবেশনের মধ্যে দু বার বি এ কমিটি বসেছে। প্রথমটিতে সংবিধান দিবস উদযাপনে বিশেষ অধিবেশন নিয়ে সিদ্ধান্ত হয়। দ্বিতীয়টিতে, অভিজিৎ বিনায়ককে অভিনন্দন জানানো ও বিরোধীদের আনা ডেঙ্গি নিয়ে মুলতুবি প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

গত শুক্রবারেও স্পিকার জানিয়েছিলেন, সরকারের তরফে কোনও বিল পেশের বিষয়ে বিধানসভাকে এখনও জানানো হয় নি। আগামী সোমবার বিধানসভার বিজনেস স্থির হবে। এরপরে, আজ অধিবেশনের শেষে আচমকাই এই স্থগিতাদেশের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন স্পিকার।

বাম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী এই ঘটনার তীব্র সমালোচনা করে বলেন, ' যা হল বিধানসভায়, তা নজিরবিহীন৷ সংসদ হঠাত্‍ দু দিন বন্ধ হয়ে গেল, এরকম কখনও হয়েছে? স্কুল কলেজেও এমন নজির নেই৷ এটা কি রেনি ডে হল? যদি তাই হয়, তা হলে সরকার কেন ঘোষণা করল না? তিন দিন আগেও বিজনেস অ্যাডভাইসারি কমিটির বৈঠকে রিপোর্ট করা হয়নি৷'

First published: 07:43:36 PM Dec 03, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर