corona virus btn
corona virus btn
Loading

সংঘাত নয়, রাজ্যপালকে 'স্বাগত'-ই জানাল বিধানসভা

সংঘাত নয়, রাজ্যপালকে 'স্বাগত'-ই জানাল বিধানসভা

ব্যবধান মাত্র ২৪ ঘন্টার। গতকালের অবস্থান থেকে প্রায় ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে রাজ্যপালকে আজ কার্যত " স্বাগত"ই জানাল বিধানসভা

  • Share this:

ARUP DUTTA

#কলকাতা: ব্যবধান মাত্র  ২৪ ঘন্টার।  গতকালের অবস্থান থেকে প্রায় ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে রাজ্যপালকে আজ কার্যত " স্বাগত"ই জানাল বিধানসভা। সংবিধানের স্থপতি  বাবা আম্বেদকরের মূর্তিতে মালা দিয়ে  শ্রদ্ধা জানাতে আজ, শুক্রবার  বিধানসভায় আসার কথা গতকালই স্থির করে বিধানসভাকে জানিয়ে ছিলেন রাজ্যপাল। রাজ্যপালের চিঠি পেয়েই স্পিকারও তাঁকে বিধানসভায় স্বাগত জানান। তবে, এই সময় বিজনেস অ্যাডভাইসরি কমিটির বৈঠক থাকায়, বিধানসভায় রাজ্যপালকে অভ্যর্থনা জানাতে সশরীরে হাজির থাকতে না পারার কথাও তাঁকে জানিয়ে ছিলেন স্পিকার বিমান বন্দোপাধ্যায়।

আজ, শুক্রবার সকাল ন'টা পঞ্চাশ মিনিট নাগাদ রাজ্যপাল এলে রাজ্যপালের জন্য নির্দৃষ্ট ৩ নং গেট দিয়েই বিধানসভায় প্রবেশ করেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল। গতকালই এই গেট খোলা না পেয়ে এই ৩ নং গেটের সামনে দাঁড়িয়ে সরকারের কড়া সমালোচনা করেন রাজ্যপাল। তারপরেও তাঁকে কার্যত হেঁটে ঢুকতে হয়। বিধানসভায় থাকাকালীনও রাজ্যপালকে কোন সহযোগিতা করেননি বিধানসভার আধিকারিক বা নিরাপত্তা কর্মীরা।বিধানসভা ঘুরে দেখার পর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে  নিজেই সেই অভিযোগ করেছিলেন রাজ্যপাল। অথচ, আজ সেই রাজ্যপালের জন্যই ছিল "অবারিত দ্বার"।

স্পিকার বা সচিব যাদের ভূমিকাকে  ঘিরে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক, আজ তাঁরা রাজ্যপালকে এড়ালেও, স্পিকারের তরফে স্বাগত জানাতে  উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সচিব পার্থ বিশ্বাস ও বিধানসভার নিরাপত্তা প্রধান মার্শালকে।  রাজনৈতিক মহলের মতে, বিধানসভার গেট খুলে যে খোলা হাওয়া বইয়ে দিয়ে রাজভবন - রাজ্যপাল বিতর্কে যেমন সুর নরম করার বার্তা দেয় সরকার, তার সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই বিধানসভায়  উপস্থিত থেকেও তাঁকে অভ্যর্থনা জানাতে নিজে না এসে যুগ্ম সচিবকে পাঠানোর বিষয়টি নিয়ে নতুন করে কোন উষ্মা প্রকাশ করেন নি রাজ্যপাল। বরং, নরমে গরমে স্পীকারের প্রশংসাই করেন। শুধু সেটাই নয়, আম্বেদকরের মূর্তিতে মালা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা মিটিয়ে ফেলার বার্তাও দিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।

First published: December 6, 2019, 4:35 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर