corona virus btn
corona virus btn
Loading

সেন্ট জেভিয়ার্সের সমাবর্তনে অনুপস্থিত CU-র উপাচার্য,অসুস্থতা নিয়ে কটাক্ষ রাজ্যপালের

সেন্ট জেভিয়ার্সের সমাবর্তনে অনুপস্থিত CU-র উপাচার্য,অসুস্থতা নিয়ে কটাক্ষ রাজ্যপালের

সেন্ট জেভিয়ার্স এর সমাবর্তনের "সমাবর্তন ভাষণ" দেওয়ার কথা ছিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের।

  • Share this:

#কলকাতা: আবারো রাজ্যপালকে এড়িয়ে গেলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের সমাবর্তনের অন্যতম অতিথি হিসাবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য কে। প্রধান অতিথি হিসাবে কলেজের তরফে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার কে। সমাবর্তনের ভাষণ দেওয়ার কথা থাকলেও শারীরিক অসুস্থতার কারণেই আসতে পারিনি বলে কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে বার্তা দিয়েছেন উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দোপাধ্যায়। অবশ্য উপাচার্যের শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে সমাবর্তন মঞ্চেই কটাক্ষ করলেন রাজ্যপাল। সমাবর্তন মঞ্চে রাজ্যপাল বলেন "আমি যেখানেই যাচ্ছি সেখানেই দেখছি কারোর না কারোর শরীর অসুস্থ হয়ে পড়ছে। আমি তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি"।

মূলত রাজ্যপালের সঙ্গে একই মঞ্চে থাকতে হবে বলেই কি সমাবর্তন এড়িয়ে গেলেন কলকাতার উপাচার্য। এমনই জল্পনা কলেজের অন্দরেই। যদিও উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দোপাধ্যায় তার ভাষণ লিখিত আকারে কলেজকে পাঠিয়ে দেন। তা অবশ্য পাঠ ও করা হয় সমাবর্তন মঞ্চে।

সম্প্রতি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এর সমাবর্তন বিতর্ক নিয়ে জট কেটেছে। আগামী ২৮ শে জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে থাকবেন রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার। বিশ্ববিদ্যালয়ের আমন্ত্রণে তা জানিয়েও দিয়েছেন রাজ্যপাল। কিন্তু বৃহস্পতিবার এর সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের সমাবর্তন মঞ্চে ফের তাল কাটল। এ বার অবশ্য সেন্ট জেভিয়ার্স এর সমাবর্তন মঞ্চে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এর অনুপস্থিতিকে ঘিরে। সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের সমাবর্তনে সমাবর্তন ভাষণ দেওয়ার কথা ছিল উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দোপাধ্যায় এর। কলেজের তরফে তার ব্যানার লাগানোর পাশাপাশি আমন্ত্রণ পত্র ও তার নাম লেখা ছিল। প্রধান অতিথি হিসেবে রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার কে আমন্ত্রণ জানিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। কিন্তুু প্রধান অতিথি উপস্থিত থাকলেও গরহাজির উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দোপাধ্যায়। শারীরিক অসুস্থতার কারণে না আসার কথা বললেও সমাবর্তন মঞ্চে অবশ্য কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার। সমাবর্তন মঞ্চে তিনি বলেন " আমি ভেবেছিলাম কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এর উপাচার্য আসবেন। যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য কেই সম্মান জানানো হচ্ছে। ওনার শারীরিক অসুস্থতার দ্রুত আরোগ্য কামনা করি। আমি দেখছি যেখানেই আমি যাচ্ছি সেখানেই সবার শরীর খারাপ হয়ে যাচ্ছে।"

তবে এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। অবশ্য কলেজ কর্তৃপক্ষে তরফে কলকাতার উপাচার্যের অনুপস্থিতি নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি। যদিও এদিনের সমাবর্তন মঞ্চে উপাচার্যের পাঠানো কলেজের উদ্দেশ্যে বার্তা পাঠ করা হয়।

Published by: Pooja Basu
First published: January 16, 2020, 5:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर