Home /News /kolkata /
Girish Park Robbery: গিরিশ পার্কে সোনা লুঠের ঘটনায় গ্রেফতার অভিযোগকারীই, নিজের মাথা ফাটিয়ে গিয়েছিল পুলিশে

Girish Park Robbery: গিরিশ পার্কে সোনা লুঠের ঘটনায় গ্রেফতার অভিযোগকারীই, নিজের মাথা ফাটিয়ে গিয়েছিল পুলিশে

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

Girish Park Robbery: পুলিশ জানিয়েছে, পরেশ শাহ নামে একটি স্বর্ণ ব্যবসায়ীর কর্মচারী এরা দুজন।। ভাইকে সঙ্গে নিয়ে সোনা লুঠের পরিকল্পনা করে নীতীশ।

  • Share this:

#কলকাতা: যারা যেচে গিয়ে অভিযোগ করল, তাদেরই চুরির দায়ে গ্রেফতার করল পুলিশ। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে গিরিশ পার্কের লুঠের তদন্তে। গিরিশ পার্কে সম্প্রতি এক স্বর্ণ ব্যবসায়ী পরেশ শাহ-এর আবাসনে ভয়ানক লুঠের ঘটনা ঘটে। সেখান থেকে বহুমূল্য সোনা লুঠ করে পালায় দুষ্কৃতীরা। কিন্তু সেই লুঠের ঘটনায় পুলিশের কাছে অভিযোগ করে ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ীর দুুই কর্মচারী। কিন্তু পুলিশ তদন্ত করতে গিয়ে দেখে, এই দুজনই আসলে চুরির পিছনে রয়েছে। পুলিশের কাছে যাওয়ার আগে তাঁরা নিজেরাই নিজেদের মাথা ফাটিয়ে যায়, যাতে পুলিশ গোটা ঘটনার কথা বিশ্বাস করে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ধরে ফেলে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, পরেশ শাহ নামে একটি স্বর্ণ ব্যবসায়ীর কর্মচারী এরা দুজন। ভাইকে সঙ্গে নিয়ে সোনা লুঠের পরিকল্পনা করে নীতীশ। সেই অনুসারে, সোমবার সকালে গিরিশ পার্কে চলে আসে ওই দুজন। তার পর হলুদ ট্যাক্সি করে এরা দুজনে চলে আসে ওই আবাসনের সামনে। সেখানে নীতীশ ও তাঁর ভাই নীতীনকে সঙ্গে নিয়ে ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ীর আবাসনে এরা প্রবেশ করে। পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ দেখে বিস্তারিত জানতে পারে।

আরও পড়ুন: শরীরে নেই কোনও আঘাতের চিহ্ন, দক্ষিণ আফ্রিকার পানশালায় ২২ কিশোর-কিশোরীর রহস্যমৃত্যু

পুলিশ সূত্রে খবর, নিজেই, নিজের মাথায় আঘাত করে নীতীশ। আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দেয়। তার পর সোনা নিয়ে চম্পট দেয় নীতীন। এর পরেই নিজের উপর হামলার নাটক করে নীতীশ। সরাসরি চলে যায় পুলিশের কাছে। সেখানে নাটক করে বলে, দুষ্কৃতীদের হামলায় তার মাথা ফেটেছে। পরে বিস্তারিত পুলিশি তদন্তে উঠে আসে আসল তথ্য।

আরও পড়ুন:নার্সের চাকরিতে যোগ দিতে চাওয়ায় হাত কেটে দেয় স্বামী! সেই রেণু খাতুনকে বুকে জড়িয়ে ধরলেন মুখ্যমন্ত্রী

তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, যারা এসেছিল তাদের মুখ-চোখ ঢাকা ছিল। ফলে চেনা সম্ভব হয়নি। যদিও পরে পুলিশি তদন্তে সন্দেহ হওয়ায় পুলিশ ফের চেপে ধরে নীতীশকে। সেখানেই, মানে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের সামনে আসল কথা স্বীকার করে নীতীশ। তার পরেই নীতীশ ও তার ভাইকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ইতিমধ্যে লুঠ হওয়া শোনা উদ্ধার করা হয়েছে।

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Kolkata Police

পরবর্তী খবর