কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ইংল্যান্ডে নিলামে উঠল মহাত্মা গান্ধী ব্যবহৃত বাটি, কাঁটাচামচ

ইংল্যান্ডে নিলামে উঠল মহাত্মা গান্ধী ব্যবহৃত বাটি, কাঁটাচামচ

১৯৪২ থেকে ১৯৪৪ সালের মধ্যে পুণের আগা খান প্যালেস ও মুম্বইয়ের পাম বান হাউজে থাকাকালীন যে-যে বাসনপত্র মহাত্মা গান্ধী (Mahatma Gandhi) ব্যবহার করতেন, এবার সেগুলোর নিলাম হবে

  • Share this:

#ইংল্যান্ড: ১৯৪২ থেকে ১৯৪৪ সালের মধ্যে পুণের আগা খান প্যালেস ও মুম্বইয়ের পাম বান হাউজে থাকাকালীন যে-যে বাসনপত্র মহাত্মা গান্ধী (Mahatma Gandhi) ব্যবহার করতেন, এবার সেগুলোর নিলাম হবে। জানা গিয়েছে,  ইংল্যান্ডের ব্রিস্টল শহরে এই নিলাম হবে।

আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১-এর জানুয়ারি মাসের ১০ তারিখে এই নিলাম শুরু হবে ৫৫,০০০ জিবিপি (GBP) বা গ্রেট ব্রিটেন পাউন্ড দিয়ে। ভারতীয় মুদ্রায় এটি প্রায় ৫৪, ৫৭,৮১০ টাকার সমান। সূত্র অনুযায়ী জিএসটি, বিমা, ভাড়া, যিনি নিলাম করছেন তাঁর লভ্যাংশ এবং ভারতীয় পুরাকীর্তি এখানে আনার জন্য যে শুল্ক দিতে হয়, সব মিলিয়েও সব চেয়ে কম নিলাম হাঁকা হতে পারে ১.২ কোটি টাকার!

এখানে মূলত নিলাম করা হচ্ছে গান্ধীজীর ব্যবহার করা বাসনপত্র। এই সব বাসনপত্রের মধ্যে আছে একটি ছোট ধাতব বাটি, দু'টি কাঠের চামচ এবং একটি কাঁটাচামচ। তিনি আগা খান প্রাসাদে বন্দী থাকাকালীন এবং মুম্বইয়ের পাম বানে বন্ধু নরোত্তম মোরারজির বাংলোয় থাকার সময় এগুলি ব্যবহার করেছিলেন। মহাত্মা বেশ কয়েকবার এই বাড়িতে এসেছিলেন, বিশেষত ১৯২৪ সালে অ্যাপেনডিসাইটিস অপারেশনের পরে।

নিলাম বিষয়টি এমনিতেই খুব অনিশ্চিত। নিলাম যিনি করছেন তিনি মূল্যের অঙ্কের ঊর্ধ্বসীমা জিবিপি ৮০,০০০-এর মধ্যেই রাখতে চান, যা ভারতীয় মুদ্রায় ২ কোটি টাকার কাছাকাছি। অন্যান্য আনুষঙ্গিক খরচ যোগ করেই নিলাম শুরু হবে।

গান্ধীজীর স্মৃতিবিজড়িত এই সব জিনিসপত্র আসলে সুমতি মোরারজির সংগ্রহ থেকে এসেছে। সুমতি মোরারজি ভারতের ও গোটা বিশ্বে প্রথম একজন মহিলা যিনি জাহাজের ব্যবসা করতেন। ভারতীয় শিপিং ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সম্মান পদ্মবিভূষণ দ্বারা ভূষিত হয়েছিলেন। সুমতি মহাত্মার ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের তালিকায় ছিলেন।

গান্ধীজী সহজ-সরল জীবনযাত্রায় বিশ্বাস করতেন। তাই তাঁর পোশাক থেকে খাওয়াদাওয়া, সবই ছিল খুব সাধারণ মাণের। তাই এ ক্ষেত্রেও তাঁর ব্যবহৃত বাটি, কাঁটা চামচ সবই খুব বৈশিষ্ট্যহীন। এর আগেও মহাত্মা গান্ধীর ব্যবহৃত অনেক জিনিস নিলাম হয়েছে। তবে, যাঁরা এগুলো কিনেছেন, তাঁরা টাকা দিতে কোনও কার্পণ্য করেননি। একই নিলাম সংস্থা কিছু দিন আগে ২.৫ কোটি টাকায় গান্ধীজির চশমাও নিলাম করেছিল।

Published by: Rukmini Mazumder
First published: December 31, 2020, 3:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर