• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • FROM 9 AUGUST BENGAL BJP WILL STARTS THEIR NEW PROGRAMME TO SAVE WEST BENGAL SB

Bengal Bjp: ৯ অগস্ট রাজ্যে মশাল নিয়ে পথে বিজেপি! সূচনা 'পশ্চিমবঙ্গ বাঁচাও সপ্তাহ'-র

পথে নামছে বিজেপি

Bengal Bjp: বিজেপি সূত্রে জানা যাচ্ছে, ৯ অগস্ট মশাল মিছিল করবে বিজেপি যুব মোর্চা। কিন্তু ভারত ছাড়ো আন্দোলনের দিন কেন মশাল মিছিল?

  • Share this:

    #কলকাতা: ১৬ অগস্ট রাজ্য সরকারের 'খেলা হবে' দিবসের পাল্টা 'পশ্চিমবঙ্গ বাঁচাও সপ্তাহ' পালনের ডাক দিয়েছে বিজেপি। এ প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) জানিয়েছেন, '১৬ অগাস্ট পশ্চিমবঙ্গ বাঁচাও দিবস পালন করতাম আমরা। তবে এবারে পশ্চিমবঙ্গ বাঁচাও সপ্তাহ পালন করব। ৯ অগাস্ট থেকে ১৬ অগাস্ট পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ বাঁচাও সপ্তাহ পালিত হবে। বিস্তারিত সূচি পরে ঘোষণা করা হবে। ৯ তারিখ ভারত ছাড়ো দিবস রয়েছে। ঐতিহাসিক দিন। সেদিনই শুরু হবে এই কর্মসূচি।’ আর বিজেপি সূত্রে জানা যাচ্ছে, ৯ অগস্ট মশাল মিছিল করবে বিজেপি যুব মোর্চা। কিন্তু ভারত ছাড়ো আন্দোলনের দিন কেন মশাল মিছিল? বিজেপি সূত্রে দাবি, কারণ সেই রাজ্যের ভোট পরবর্তী হিংসা। তারই প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে মশাল মিছিল করবেন যুব মোর্চার কর্মীরা।

    ইতিমধ্যেই ঠিক হয়েছে, ভোট পরবর্তী হিংসায় দলের নিহত কর্মীদের বাড়িতে যাবেন চার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সুভাষ সরকার, জন বার্লা, শান্তনু ঠাকুর ও নিশীথ প্রামাণিক। তাঁদের সঙ্গে থাকবেন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের সাংসদ, বিধায়করা। নিহত কর্মীদের এই বাড়ি যাওয়া কর্মসূচিকে বিজেপি নাম দিয়েছে 'আশীর্বাদ যাত্রা'। গোটা অগস্ট মাস জুড়েই চলবে এই কর্মসূচি।

    প্রসঙ্গত, ভুয়ো ভ্যাকসিন, ভ্যাকসিন দুর্নীতি এবং নির্বাচন-পরবর্তী অশান্তি নিয়ে বারবার দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছেও নালিশ জানিয়েছেন বঙ্গ বিজেপির সাংসদরা। আসলে বিরোধীরা যখন ২০২৪-কে সামনে রেখে কোমর বাঁধছে, তখন চুপ করে বসে নেই কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপিও। গত মঙ্গলবারই দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয় সংসদীয় কমিটির বৈঠক। সেখানেই বিজেপি সাংসদদের উদ্দেশ্যে বিশেষ বার্তাও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সূত্রের খবর বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা সংসদে সব প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য তৈরি থাকুন। দীর্ঘশ্বাসের মত ভুয়ো ইস্যু নিয়ে লড়ছে বিরোধীরা। আসল উদ্দেশ্য সংসদ অধিবেশন বসতে না দেওয়া।'

    বাংলাতেও সেই পথেই হেঁটে সেই ভোট পরবর্তী অশান্তি নিয়ে এখনও সরব থাকতে চাইছে বিজেপি। যদিও তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষের কটাক্ষ, ‘ওঁরা অগাস্ট বিপ্লব করবেন বলছেন। অথচ মে-এর বিপ্লবই তো সামলাতে পারেননি। 'আবকি বার ২০০ পার' বলে ভরাডুবি, পেট্রোলের সেঞ্চুরি পার, রান্নার গ্যাসে আগুন, সাধারণ মানুষের উপর অস্বাভাবিক চাপ বাড়ছে। তৃণমূল সরকার এবার বাংলাকে সুরক্ষিত করে দিল্লির দিকে পা রাখছে দিল্লির দিকে পা রাখছে, বিকল্প পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে। যারা বাংলার বিপ্লব সামলাতে পারেনি, তাদের ঢক্কা নিনাদ তারা নিয়ে বসে থাকুক।’

    Published by:Suman Biswas
    First published: