রূপার জন্য ‘পাত্র’ এল ওড়িশা থেকে

রূপার জন্য ‘পাত্র’ এল ওড়িশা থেকে

পাকা কথা আগেই সারা হয়ে গিয়েছিল। অপেক্ষা ছিল শুধু ছাদটা এক হওয়ার। অবশেষে সেই প্রতীক্ষার অবসান হল। আলিপুরের পাত্রী রূপার জন্য ওড়িশার নন্দনকানন থেকে চলে এল পাত্র ঋষি। বরযাত্রী হিসেবে সঙ্গে এল আরও তিনজন। পায়েল, শীলা এবং স্নেহাশিস।

  • Share this:

#কলকাতা: পাকা কথা আগেই সারা হয়ে গিয়েছিল। অপেক্ষা ছিল শুধু ছাদটা এক হওয়ার। অবশেষে সেই প্রতীক্ষার অবসান হল। আলিপুরের পাত্রী রূপার জন্য ওড়িশার নন্দনকানন থেকে চলে এল পাত্র ঋষি। বরযাত্রী হিসেবে সঙ্গে এল আরও তিনজন। পায়েল, শীলা এবং স্নেহাশিস।

বহুদিন ধরে পাত্রের পথ চেয়ে বসেছিল রূপা। ঋষির তার জীবনে আসায় অপেক্ষার অবসান হল। বসন্তের শুরুতেই জীবনসঙ্গী পেল রূপা। শনিবার আলিপুর চিড়িয়াখানার সাদা বাঘিনী রূপা পেল পুরুষ সঙ্গী সাদা বাঘ ঋষিকে।

তবে ঋষি একা নয়, তার সঙ্গে এসেছে আরও তিন-তিনটি বাঘ। এরা অবশ্য সাদা নয়, গোত্রে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। নাম পায়েল, শীলা এবং স্নেহাশিস। ঋষির রূপারই বয়সী, বয়স এগারো। পায়েলের বয়স সাত, স্নেহাশিস এবং শীলার বয়স বছর দুয়েক।  নতুন অতিথিদের জন্য রাতের মেনুতে রাখা হয়েছিল চিকেন। আপাতত এই চারজনকে একটি আলাদা খাঁচায় রাখা হবে। আলিপুর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে , কুড়ি-পঁচিশ দিন পর থেকে সাধারণ মানুষ দেখতে পাবেন নতুন বাঘগুলিকে।  কিছুদিনের মধ্যেই রুপা আর ঋষির জন্য নতুন খাঁচা বরাদ্দ হবে। তারপরই শুরু হবে জমিয়ে সংসার। আলিপুরে রূপা-ঋষির সংসারে নতুন অতিথির আগমন কবে হয়, তার আশাতেই দিন গুনছে আলিপুর চিড়িয়াখানা ৷

First published: 11:42:45 AM Feb 21, 2016
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर