বিহারের চার কুখ্যাত সমাজবিরোধীকে গ্রেফতার করল চাকুলিয়া থানার কানকু ফাঁড়ির পুলিশ

বিহারের চার কুখ্যাত সমাজবিরোধীকে গ্রেফতার করল চাকুলিয়া থানার কানকু ফাঁড়ির পুলিশ

গাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ১৫০ বোতল কাফ সিরাফ।

গাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ১৫০ বোতল কাফ সিরাফ।

  • Share this:

# কিষানগঞ্জ: চাকুলিয়া কিষানগঞ্জ থেকে ডালখোলায় যাবার সময় কানকি বাস ষ্ট্যান্ডের কাছে একটি গাড়ি তল্লাশী চালিয়ে বিহারের চার কুখ্যাত সমাজবিরোধীকে গ্রেপ্তার করেছে চাকুলিয়া থানার কানকি ফাঁড়ির পুলিশ। গাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ১৫০ বোতল কাফ সিরাফ। ধৃত চারজনকেই ইসলামপুর আদালতে হাজির করে সাতদিনের পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে কানকি ফাঁড়ির পুলিশ। ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানিয়েছেন, ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চালানো হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রতিদিনের মত শনিবার রাতেও কানকি বাস ষ্ট্যান্ডের কাছে নাকা চেকিং চালাচ্ছিলেন কানকি ফাঁড়ির পুলিশ। কিষানগঞ্জ দিক থেকে ডালখোলা গামী একটি বিহারের গাড়িতে তল্লাশি চালালে গাড়ি থেকে ১৫০ বোতল কাফসিরাপ উদ্ধার হয়। কাফ সিরাপ পাচার করার অভিযোগে পুলিশ গাড়ির চার যাত্রীকে গ্রেফতার করে। ধৃতরা হলেন চন্দ্র শেখর কুমার, শম্ভু কুমার  সিং, মন্দেশ কুমার সিং এবং অঙ্কুশ কুমার সিং। ধৃত চারজনের বাড়ি বিহারে।আটক ব্যাক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পারে ধৃতদের বিরুদ্ধে বিহারে অসামাজিক কাজের একাধিক মামলা ঝুলছে। ধৃত চারজনকে কানকি ফাঁড়ির পুলিশ ইসলামপুর আদালতে পেশ করে। তদন্তের স্বার্থে আদালত ধৃতদের চারদিনের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে।

ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানিয়েছেন, ধৃত চারজন বিহারের বিভিন্ন থানার বাসিন্দা। তাদের বিরুদ্ধে কি কি মামলা ঝুলছে তা জানতে বিহার পুলিশকে লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে।  ধৃতরা যে গাড়িটি ব্যাবহার করেছিল সেই গাড়িটি বাজেয়াপ্ত করেছে। এছাড়া কফ সিরাফ পাচারের নামে ডালখোলায় কোন অসামাজিক কাজ সংগঠিত করতে তারা সেখানে যাচ্ছিলেন কি না পুলিশ সেটিও খতিয়ে দেখছে।চাকুলিয়া থানার পুলিশ আধিকারিক ধৃত চারজনই বিহার বিভিন্ন থানার বাসিন্দা। সংশ্লিষ্ট থানার আধিকারিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান বিহারের সমাজবিরোধীরা ডালখোলায় এসে কোন অসামাজিক কাজ সংগঠিত করত।পুরো বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।গত ২৩ ডিসেম্বর চাকুলিয়া থানার সানিসুইয়া গ্রামে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতি হয়। ছয় দিন কেটে গেলেও পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এই ঘটনার পর চাকুলিয়া থানার পুলিশ নড়েচড়ে বসেছে।

Uttam Paul

Published by:Debalina Datta
First published: