• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • হাসপাতালে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, উদ্বিগ্ন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সুস্থতা কামনা করলেন

হাসপাতালে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, উদ্বিগ্ন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সুস্থতা কামনা করলেন

গত কয়েকদিন ধরেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা ঠিক যাচ্ছিল না।

গত কয়েকদিন ধরেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা ঠিক যাচ্ছিল না।

গত কয়েকদিন ধরেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা ঠিক যাচ্ছিল না।

  • Share this:

    #কলকাতা: প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের অসুস্থতার খবর শুনে উদ্বিগ্ন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ট্যুইট করে তিনি তাঁর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন৷ তিনি লিখেছেন যে বুদ্ধবাবুর শারীরিক অবস্থা নিয়ে চিন্তিত৷ শ্বাসের সমস্যা নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি৷ তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি৷

    উল্লেখ্য ভোটের ময়দানে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের সঙ্গে যতই দূরত্ব থাকুক না কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, ব্যক্তিগত জীবনে বুদ্ধবাবুকে খুবই শ্রদ্ধা করেন মমতা৷ ৩ বছর আগে বুদ্ধবাবুকে দেখতে সরাসরি তাঁর পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়ি পৌঁছে গিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

    অসুস্থ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে বাড়িতে দেখতে গিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুদ্ধবাবুর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নেন তিনি। কথা বলেন পরিবারের লোকের সঙ্গে। সে সময় কোনও রকম সরকারি সাহায্য প্রয়োজন হলে তাঁকে জানাতেও বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। দিয়েছিলেন পাশে থাকার আশ্বাস৷

    রাজনীতির ময়দানে তাঁরা চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। রাজনৈতিক মতাদর্শে এখনও তাঁরা চরম বিরোধী। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী বন্দ্যোপাধ্যায় ব্যক্তিগত সৌজন্য বোধকে সব সময়ই রাজনীতি থেকে আলাদা রাখেন৷ বুদ্ধবাবুর শারীরিক অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে তা আরও একবার বুঝিয়ে দিলেন তৃণমূল নেত্রী৷

    গত কয়েকদিন ধরেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা ঠিক যাচ্ছিল না। গতকাল, মঙ্গলবার, থেকেই তাঁর শ্বাসকষ্ট বাড়ছিল। দীর্ঘদিন ধরেই তাঁর সিওপিডির সমস্যা ছিল। নতুন করে শ্বাসকষ্ট বাড়ায় কোনও রকম ঝুঁকি না নিয়ে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ব্যক্তিগত চিকিৎসকের পরামর্শে তাঁকে বুধবার দুপুরে আলিপুরের উডল্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। দেখা যায় তাঁর অক্সিজেন মাত্রা কমে গিয়েছে অনেকটাই। তড়িঘড়ি তাঁর প্রয়োজনীয় শারীরিক পরীক্ষা করা শুরু হয়। চেস্ট এক্স রে, ইসিজি সিটি স্ক্যান-সহ অন্যান্য জরুরি পরীক্ষা করা হচ্ছে। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, এখনই তাঁর শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে কোনও কিছু বলা সম্ভব নয়। আপাতত তাঁকে আইসিউতে রাখা হয়েছে। হাসপাতালে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী ও কন্যা। সূত্রের খবর কিছুক্ষণেই সেখানে পৌঁছবেন বাম নেতৃত্বরা।

    শেষ কয়েক বছরে নিজেকে কিছুটা অন্তরালেই নিয়ে গিয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। সম্প্রতি তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির খবর নিতে সস্ত্রীক তাঁর বাড়িতে পৌঁছে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বারবার তাঁর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

    Published by:Pooja Basu
    First published: