শুক্রবার রাত থেকে সোমবার ভোর পর্যন্ত বন্ধ থাকছে আম্বেদকর সেতুর একাংশ, কোন পথে যাবেন? জানুন

শুক্রবার রাত থেকে সোমবার ভোর পর্যন্ত বন্ধ থাকছে আম্বেদকর সেতুর একাংশ, কোন পথে যাবেন? জানুন
Ambedkar bridge

শনিবার ও রবিবার থাকায় পুলিশ বলছে, যানজট তেমন হবে না | সামলানো যাবে পরিস্থিতি | তবে সাময়িক কিছু সমস্যা হলেও যাত্রীরাও চাইছেন, সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা তথা লোড টেস্ট করা হোক | সেতু ভেঙে পড়ার থেকে অনেক ভাল যানজটের কিছুটা ঝক্কি নিয়ে যাতায়াত করা৷

  • Share this:

    #কলকাতা: শহরে ফের সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা! লোড টেস্টের জন্য এবার বন্ধ আম্বেদকর সেতুর একাংশ  | মাঝেরহাট  সেতু ভেঙে পড়ার পর থেকেই শহরের বিভিন্ন সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা চালু হয়  | ভয়াবহ  সেই অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে শহরের সেতুগুলির নির্দিষ্ট  সময় অন্তর স্বাস্থ্য়  পরীক্ষা করা হয় | ট্রাফিক সূত্রে খবর,  আম্বেদকর সেতুর লোডিং  টেস্ট তথা  সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার জন্য বন্ধ রাখা হবে একাংশ | আগামী শুক্রবার রাত থেকে সোমবার ভোর পর্যন্ত  বন্ধ থাকবে আম্বেদকর  সেতুর একাংশ  |

    কলকাতা ট্রাফিক  পুলিশ  সূত্রে খবর , সেতুর দক্ষিণমুখী  গাড়ি তথা রুবি গামী গাড়ি  যাওয়ার পথের একাংশ বন্ধ থাকবে |  আর উত্তর মুখী গাড়ি যাওয়ার পথ তথা চিংড়িঘাটা দিকে যাওয়ার রাস্তা খোলা থাকবে |  উত্তর মুখী ওই রাস্তা দিয়ে গাড়ি আসবে ও যাবে | তবে ই এম বাইপাস যেহেতু গুরুত্বপূর্ণ  রাস্তা, এই রাস্তা দিয়ে বহু গাড়ি চলাচল করে, ফলে ট্রাফিকের উপর চাপ পড়তে পারে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল  মহল |  যদিও লালবাজার  ট্রাফিক  কর্তাদের দাবি, শনিবার ও রবিবার  হাইওয়েতে ট্রাফিকের উপর খুব বেশি চাপ পড়বে  না | গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক থাকবে |  কেএমডিএ ও কলকাতা  ট্রাফিক  পুলিশ তরফে শুক্রবার  রাত থেকে সোমবার ভোর পর্যন্ত  ওই সেতু বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত  নেওয়া হয়েছে | জয়েন্ট সিপি ট্রাফিক  সন্তোষ কুমার পাণ্ডে জানান, " লোড  টেস্ট জন্য আম্বেদকর  সেতু একঅংশ  বন্ধ থাকবে | "

    কিন্তু প্রশ্ন হল, বাইপাসের এই রাস্তা দিয়ে দিনে কয়েক লক্ষ গাড়ি  চলে | সেই রাস্তায় অফিস টাইমে বা  সন্ধে হলেই মাঝে মধ্যেই  লম্বা লাইন পড়ে যায় গাড়ির | সেই রাস্তায় একটি লেন দিয়ে দ্বিমুখী  গাড়ি যাতায়াত করবে |  ফলে যানজট হওয়ার আশঙ্কা  থেকেই যাচ্ছে বলে দাবি নিত্য যাত্রীদের একাংশের |  তবে শনিবার ও রবিবার থাকায় পুলিশ বলছে, যানজট তেমন হবে না |  সামলানো যাবে পরিস্থিতি  |  তবে সাময়িক  কিছু সমস্যা  হলেও যাত্রীরাও  চাইছেন, সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা তথা লোড টেস্ট করা হোক |  সেতু ভেঙে পড়ার থেকে অনেক ভাল যানজটের  কিছুটা  ঝক্কি  নিয়ে যাতায়াত করা | ই এম বাইপাসের আম্বেদকর সেতু রুবি - গড়িয়া- সোনারপুর  থেকে চিংড়িঘাটা - বাইপাস  এই দীর্ঘ  পথকে সংযোগ করে| এই দীর্ঘ  সংযোগকারী আম্বেদকর  সেতুর  একাংশ  বন্ধ থাকার ফলে ট্রাফিকের উপর প্রভাব পড়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে | যদিও লালবাজারের ট্রাফিক  কর্তাদের দাবি, এক দিকের রাস্তা দিয়ে দ্বিমুখী  গাড়ি যাতায়াত  করবে, তাই সমস্যা  হবে না |


    ARPITA HAZRA

    Published by:Pooja Basu
    First published: