• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • রাতে এই পাঁচটি জিনিস মাথায় রাখুন, কমে যাবে বাড়তি মেদ

রাতে এই পাঁচটি জিনিস মাথায় রাখুন, কমে যাবে বাড়তি মেদ

শরীরে মেদ তো লাগবেই ৷ কিন্তু যদি একটু সময় নিয়ে রোজ কিছু নিয়ম মেনে চলা যায় ৷ তাহলে খুব সহজেই পাওয়া যাবে সুন্দর ছিপছিপে শরীর ৷ কীভাবে?

শরীরে মেদ তো লাগবেই ৷ কিন্তু যদি একটু সময় নিয়ে রোজ কিছু নিয়ম মেনে চলা যায় ৷ তাহলে খুব সহজেই পাওয়া যাবে সুন্দর ছিপছিপে শরীর ৷ কীভাবে?

শরীরে মেদ তো লাগবেই ৷ কিন্তু যদি একটু সময় নিয়ে রোজ কিছু নিয়ম মেনে চলা যায় ৷ তাহলে খুব সহজেই পাওয়া যাবে সুন্দর ছিপছিপে শরীর ৷ কীভাবে?

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: ব্যস্ততার জীবনে নিজের জন্য সময় বের করা প্রায় অসম্ভব্য হয়ে উঠেছে ৷ দিনভর অফিসে কাজের চাপ সামলে বাড়ি গিয়ে কেবল কখন ঘুমোবেন সেই চিন্তায় মাথায় ঘুরতে ৷ বেশিরভাগ সময় ডিনার সেরেই ঘুমোতে চলে যান ৷ কিন্তু জানেন কী রোজকার এই স্বভাব আপনার স্বাস্থ্যের জন্য কতটা ক্ষতিকারক ৷ শারীরিক অসুস্থার পাশাপাশি এর জেরে আপনার শরীরের বাসা বাধতে শুরু করে বাড়তি মেদ ৷

    রোগা, ছিপছিপে শরীর কে না চায় ৷ কিন্তু ব্যস্ততার যুগে নিজের শরীরের দিকে নজর রাখার সুযোগ ক’জন পান ৷ তার ওপর ফাস্টফুড ৷ শরীরে মেদ তো লাগবেই ৷ কিন্তু যদি একটু সময় নিয়ে রোজ কিছু নিয়ম মেনে চলা যায় ৷ তাহলে খুব সহজেই পাওয়া যাবে সুন্দর ছিপছিপে শরীর ৷ কীভাবে? খাবারে কম নুন খান- রাতের খাবারে নুন কম দিন ৷ পাশাপাশি বেশি তেল বা ভাজাভুজি জাতীয় খাবর এড়িয়ে চলুন ৷ সম্ভব হলে সেদ্ধ খাবার খান৷ পেটের চর্বি কমাতে এই উপায় খুব উপকারি ৷ এক্সারসাইজ করুন বেশিরভাগ মানুষ সকালে ব্যায়াম করতে পছন্দ করেন ৷ কিন্তু রাতে ওয়ার্কআউট করলেও ওজন কমতে সাহায্য করে ৷ পাশাপাশি ঘুমও ভালো হয় যাতে আপনার হজম শক্তি বৃদ্ধি পায় ৷ তাড়াতাড়ি ডিনার করে ফেলুন বেশি রাতে ডিনার একদম নয় ৷ বেশি দেরি করে খেলে খাওয়া ও ঘুমের মধ্যে সময় কমে যায় ৷ খেয়েই ঘুমিয়ে পড়লে খাবার হজম হয় না ও শরীরে ফ্যাট জমতে শুরু করে দেয় ৷ রাতে ঘুমনোর সময় ঘর অন্ধকার রাখুন রাতে ঘরে আলো জ্বালানো থাকলে তা আপনার ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে ৷ তাই ঘুমোনের আগে সমস্ত আলো নিভিয়ে দিন ৷ অন্ধকারে মেলাটোনিন বেশি মাত্রায় তৈরি যা শরীরের ফ্যাট দুর করতে সাহায্য করে ৷ ঘরের তাপমাত্রার খেয়াল রাখুন রাতে শোয়ার সময় ঘরের তাপমাত্রার খেয়াল রাখুন ৷ যদি ঘর বেশি ঠান্ডা বা গরম থাকে তাতে আপনার ঘুমোতে অসুবিধা হতে পারে ৷
    First published: