• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • হেলমেট ছাড়াই বাইক চালাচ্ছে হিরো! সিনেমা দেখেই কি অনুপ্রাণিত যুবসমাজ?

হেলমেট ছাড়াই বাইক চালাচ্ছে হিরো! সিনেমা দেখেই কি অনুপ্রাণিত যুবসমাজ?

সিনেমাতেও আকছাড় দেখা যাচ্ছে হেলমেট ছাড়াই রাস্তায় বাইক চালাচ্ছেন হিরো। তবে কি এই হিরোদের দেখেই উৎসাহ পাচ্ছেন বাইক আরোহীরা?

সিনেমাতেও আকছাড় দেখা যাচ্ছে হেলমেট ছাড়াই রাস্তায় বাইক চালাচ্ছেন হিরো। তবে কি এই হিরোদের দেখেই উৎসাহ পাচ্ছেন বাইক আরোহীরা?

সিনেমাতেও আকছাড় দেখা যাচ্ছে হেলমেট ছাড়াই রাস্তায় বাইক চালাচ্ছেন হিরো। তবে কি এই হিরোদের দেখেই উৎসাহ পাচ্ছেন বাইক আরোহীরা?

  • Share this:

    #কলকাতা: ট্রাফিক পুলিশের নজরদারির পাশাপাশি রাজ্য প্রশাসনের প্রচার। তবুও হুঁশ ফিরছে না। বাড়ছে সিট বেল্ট বা হেলমেট না পড়ার প্রবণতা। সিনেমাতেও আকছাড় দেখা যাচ্ছে হেলমেট ছাড়াই রাস্তায় বাইক চালাচ্ছেন হিরো। তবে কি এই হিরোদের দেখেই উৎসাহ পাচ্ছেন বাইক আরোহীরা? এই প্রশ্নে মিশ্র প্রতিক্রিয়া টলিউডের।

    সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে গতির খেলা। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দুর্ঘটনা। এমনকী হচ্ছে মৃত্যুও। ভারতে প্রতিদিন চারশো জনের মৃত্যু হয় সড়ক দুর্ঘটনায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় হেলমেট না পড়া, বেপরোয়া গতি ও সিট বেল্ট না পড়ার কারণেই ঘটছে দুর্ঘটনা।

    সিনেমাতে আকছাড় দেখা যাচ্ছে তীব্র গতিতে বাইক, গাড়ি চালাচ্ছেন হিরো-হিরোইন। হেলমেট বা সিট বেল্টের কোনও বালাই নেই। অনেকের মতে, হেলমেট, সিটবেল্ট না পড়াকে এই ধরনের সিনেমাগুলিই উৎসাহ দিচ্ছে ।

    সিনেমা দেখে খারাপটা শেখা মোটেই বুদ্ধিমানের কাজ নয় বলে মত রুদ্রনীল ঘোষ,হিরণের মতো টলিউড অভিনেতাদের।

    কঠোর আইনই বেপরোয়া গতি ও আইন ভাঙাকে আটকাতে পারবে বলে মত অভিনেত্রী শ্রীলেখার।

    দোহারের গায়ক কালিকাপ্রসাদ, অভিনেতা পীযুষ সহ আরও অনেকের ক্ষেত্রেই বেপরোয়া গতি কেড়েছে প্রাণ। তবুও হুঁশ ফেরেনি। বদলায়নি ছবিটা। সিনেমায় সতর্কীকরণ বার্তা দিলে বাড়বে সাধারণের সচেতনতা। হয়ত কিছুটা হলেও কমবে দুর্ঘটনাও।

    First published: