আর দেখা হবে না জোনাকির সঙ্গে, ভ্য়ালেনটাইন্স ডের আগে খারাপ খবর

আর দেখা হবে না জোনাকির সঙ্গে, ভ্য়ালেনটাইন্স ডের আগে খারাপ খবর
জোনাকি পোকা

 বছর আগেও যে পরিমাণ জোনাকি দেখা যেত অনেক কম। জলাভূমি  বনাঞ্চল ,ঝোপঝাড় সব কমে আসায় এখন তাঁদের সংখ্যা অনেক কমে গেছে। শুধু জঙ্গল কে?

  • Share this:

# কলকাতা : কত প্রেম ছিল জোনাকির সঙ্গে !

জোনাকিও ভালবাসতে চাইত। সন্ধে হলেই দেখা হত তার সঙ্গে। গল্প চলত মধ্য়রাত পর্যন্ত। এমন অনেক দিন হয়েছে বাড়িতেও এসেছে জোনাকি। ঘর সাজিয়ে দিয়েছে আলো দিয়ে।

সেই সাজানো ঘর ছিল মায়ার মত। যে মাতায় মেতে থাকতে ইচ্ছা করত রাতভর। কিন্তু একদিন সবার মধ্য়ে থেকে হারিয়ে গেল জোনাকি ! তারপর...

কোথায় গিয়েছে জোনাকি ? গবেষণায় দাবি করা হচ্ছে, অন্য়দের মতো সে-ও এখন বিলুপ্ত। শুধু শহরে নয়, গ্রামে-গঞ্জে। এই সময় বাংলার একটু প্রত্য়ন্ত অঞ্চলে গেলেও শোনা যায় ঝি-ঝির ডাক। কিন্তু জোনাকির দেখা পাওয়া যায় না।

পাখিদের মধ্য়ে বাবুইকে বলা হয় শিল্পী। তার বাসা দেখলেই শিল্পের প্রমাণ মেলে। সেই বাসায় আলোর জন্য়ই জোনাকিদের রাখা হত।  জীববিজ্ঞানী অভিনন্দন বড়ুয়া বলছেন, "যত বেশি কৃত্রিম আলোর ব্যবহার বাড়ছে ততই জোনাকিরা বিপদে পড়ছে। এমনিতে এই পোকারা যেকোনো জায়গায়় থাকতে পারে তবে তার জন্য একটিি পরিবেশ দরকার, খাদ্য দরকার এবং প্রজননের পরিবেশ ও দরকার। সেই সমস্ত নষ্ট হয়ে যাওয়ায় তাদের অস্তিত্ব আজ সংকটে"।

বিভিন্ন প্রজাতি মিলিয়ে এই দুনিয়ায় জোনাকির সংখ্য়া ২ হাজারের বেশি। মূলত ফসফরাস থেকে তৈরি আলো সবাইকে মুগ্ধ করে। কয়েক বছর আগেও অনেক পরিমাণে জোনাকি দেখা যেত। কিন্তু জঙ্গল কেটে আজ ইমারত তৈরি হচ্ছে। জলাভূমি বুঝিয়ে তৈরি হচ্ছে বড় বড় আবাসন। তার জেরেই কমতে কমতে আজ চোখের আড়ালে জোনাকির সংখ্য়া।

ইদানীংকালে ইংল্যান্ড, মালয়েশিয়ার মতো কিছু জায়গায় "জোনাকি পর্যটন" শুরু হয়েছে।  এবং সেখানে ভিড় করছেন হাজার হাজার দর্শক। গবেষণায় বলছে, তাতেও ক্ষতি। কারণ, তাতে স্বাভাবিক ভাবে বাঁচতে পারছে না জোনাকিরা।

ইতিমধ্যেই এশিয়া এবং দক্ষিণ আমেরিকায় বিলুপ্ত জোনাকি। চাঁদনিতে ভিজে যাচ্ছে রাস্তা। একাকী হাঁটা পথে সঙ্গে জোনাকি। এ সব আজ অতীত। কারণ, জোনাকি আর নেই। কোথায় হারিয়ে গিয়েছে।

SHALINI DATTA

First published: February 12, 2020, 2:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर