corona virus btn
corona virus btn
Loading

সাতসকালে হঠাত্‍ পার্কস্ট্রিটে আগুন! আতঙ্ক

সাতসকালে হঠাত্‍ পার্কস্ট্রিটে আগুন! আতঙ্ক

সকাল থেকে শুরু হয়েছে দুদিনের টানা লকডাউন। তার মধ্যে আবার বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্ন চাপের ফলে শহর জুড়ে চলছে দফায় দফায় বৃষ্টি। এ সবের মাঝে অগ্নিকাণ্ড।

  • Share this:

#কলকাতা: লকডাউনের সকালে আগুন পার্ক স্ট্রিটে। বৃহস্পতিবার একটি বেসরকারি সংস্থার অফিসে আগুন লাগে। তবে দমকল কর্মীদের তৎপরতার জন্য তেমন বড় কিছু ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

সকাল থেকে শুরু হয়েছে দুদিনের টানা লকডাউন। তার মধ্যে আবার বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্ন চাপের ফলে শহর জুড়ে চলছে দফায় দফায় বৃষ্টি। এ সবের মাঝে অগ্নিকাণ্ড। এ দিন সকালে আগুন লাগে ৩৯ নম্বর পার্ক স্ট্রিটের পার্ক ম্যানশনে। বিল্ডিংটিতে রয়েছে একাধিক বেসরকারি সংস্থার অফিস ও বেশ কয়েকটি শোরুম।

সকাল সাতটা নাগাদ ওই বিল্ডিংয়ের কর্মচারিরা দেখতে পান, চার তলার একটি জানালা দিয়ে ধোঁয়া বেরচ্ছে। ওই বহুতলের এক নিরাপত্তা রক্ষী বলেন, 'সকাল সাতটা নাগাদ দেখি জালনা দিয়ে ধোঁয়া।' যে অংশে আগুন লাগেছে সেখানে রয়েছে একটি চা কোম্পানির অফিস। যেখানে অফিসিয়াল কাজ কর্মের পাশাপাশি টি টেস্টিংয়ের কাজও হয়।

বিল্ডিংয়ের কর্মচারীরাই খবর দেন দমকলে। ওই বিল্ডিংয়ের কাছেই দমকলের সদর দফতর। ফলে কয়েক মিনিটের মধ্যে এসে পৌঁছে যায় দমকলের তিনটি গাড়ি। প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। কর্তব্যরত দমকল আধিকারিক রাজা ভট্টাচার্য বলেন, 'আমরা এসে দেখি জানালা দিয়ে ধোঁয়া বেরোচ্ছে। বাইরে থেকে আগুন দেখতে না পেয়ে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করি। দু হাজার স্কোয়্যার ফুটের অফিস। তার মধ্যে তেমন আগুন না থাকলেও প্রচুর ধোঁয়া ছিল। ফলে প্রাথমিক ভাবে আমাদের কাজ করতে কিছুটা অসুবিধা হয়। অফিসের মধ্যে অনেক কাঠের জিনিসপত্র থাকায় আগুন ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা ছিল। আমরা একটি নির্দিষ্ট জায়গায় আগুনকে আটকে রাখতে সফল হয়েছি।' তবে আগুন লাগার নির্দিষ্ট কোনও কারণ বলতে পারেননি দমকল কর্মীরা।

এই বহুতলের ঠিক উল্টোদিকেই স্টিফেন কোর্ট। ১০ বছর আগের স্টিফেন কোর্টের অগ্নিকাণ্ডের ভয়াবহ স্মৃতি এখনও তাজা পার্ক স্ট্রিটবাসীদের কাছে।

SOUJAN MONDAL

Published by: Arindam Gupta
First published: August 20, 2020, 12:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर