• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Mamata Attack Amit Shah: 'অভিষেকের সঙ্গে ছায়ার মতো ঘুরছে BJP-র গুন্ডারা', শাহের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মমতা

Mamata Attack Amit Shah: 'অভিষেকের সঙ্গে ছায়ার মতো ঘুরছে BJP-র গুন্ডারা', শাহের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মমতা

মমতার নিশানায় অমিত শাহ

মমতার নিশানায় অমিত শাহ

Mamata Attack Amit Shah: সুদীপ রাহা, জয়া দত্তদের দেখতে এসএসকেএম গিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে দাঁড়িয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রাণ সংশয়ের আশঙ্কা করেন তিনি। আর সেই কারণে নিশানা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে।

  • Share this:

    #কলকাতা: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রাণ সংশয়ের আশঙ্কা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাও আবার বিজেপি শাসিত ত্রিপুরায়। গত সোমবার অভিষেকের সফরের দিনই গাড়িতে হামলা হয়। এরপর তৃণমূল নেতার উপর হামলার ঘটনা ঘটছে ত্রিপুরায়। আক্রান্ত হয়েছেন এ রাজ্যের যুব তৃণমূল নেতা সুদীপ রাহা, দেবাংশু ভট্টাচার্য ও জয়া দত্তরা। তাঁদের 'উদ্ধার' করে আনতে ত্রিপুরায় হাজির হয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সুদীপ, জয়াদের দেখতে এসএসকেএম গিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে দাঁড়িয়ে অভিষেকের প্রাণ সংশয়ের আশঙ্কা করেন তিনি। আর সেই কারণে নিশানা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে।

    এদিন এসএসকেএম-এ দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের জন্য অভিষেকের জীবন ‘বিপন্ন’ হতে বসেছে বলে অভিযোগ করেছেন তৃণমূল নেত্রী। তাঁর অভিযোগ, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশেই সারাক্ষণ অভিষেকের সঙ্গে ছায়ার মতো লেগে রয়েছে বিজেপির গুন্ডারা। মমতার কথায়, 'ত্রিপুরায় অভিষেক যাওয়ার পর যে ভাবে ওর গাড়িতে মেরেছে, ওর মাথায় আঘাত লাগতে পারত। পরে প্রশাসনের তরফে বুলেটপ্রুফ গাড়ি দেওয়া হয়েছিল। এমনি গাড়ির কাচ হলে চুরমার হয়ে যেত। ওর মাথাও চুরমার হতে পারত। পুলিশের সামনেই সব হয়েছে। নানা রকম পরিকল্পনা করা হচ্ছে।' এমনকী মমতা এও অভিযোগ করেন, 'অভিষেক বিমানে কোথাও গেলে, ওর পাশের পাঁচটা আসন বুক করে গুন্ডা তুলে দেওয়া হচ্ছে। আমি বলছি, অভিষেকের জীবন বিপন্ন।'

    শনি ও রবিবার দিনভর ত্রস্ত ত্রিপুরায় আক্রান্ত হয়েছেন তৃণমূলের যুব নেতারা। তাঁরা আক্রান্ত তো হয়েইছিলেন, সেইসঙ্গে গ্রেফতারও করা হয় তাঁকে। এরপরই ত্রিপুরায় ছুটে যান তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে, দিনভর থানা আদালত করে দেবাংশু ভট্টাচার্য, জয়া দত্ত, সুদীপ রাহাদের মুক্ত করেই ত্রিপুরা ছাড়েন অভিষেক। সঙ্গে নিয়ে আসেন জয়া, সুদীপদের।

    রবিবার ভোরেই তাঁদের ভর্তি করা হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। এদিন সেখানেই যুব নেতাদের দেখতে যান মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখান থেকে বেরিয়েই বিজেপিকে আক্রমণ শানিয়ে বলেন, 'ত্রিপুরা আমাদের লোকেদের উপর নির্লজ্জ হামলা চালিয়েছে বিজেপি। সেখানে দানবীয় সরকার চালাচ্ছে বিজেপি। আমাদের কর্মীদের মারধর করে গ্রেফতার করেছে। পুলিশের সামনেই সব হয়েছে। সারাদিনে আমাদের কাউকে এক গ্লাস জল পর্যন্ত দেওয়া হয়নি।' এরপরই তাঁর সংযোজন, ''যেভাবে আক্রমণ হয়েছে, তাও আবার পুলিশের সামনে। ৩৬ ঘণ্টা কোনও চিকিৎসা করেনি। এটা সম্পূর্ণ হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশে, নাহলে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর এত সাহস হতে পারে না।''

    Published by:Suman Biswas
    First published: