বিজেপির পঞ্চায়েত ইস্তাহারে বিতর্ক, দিলীপ ঘোষের নামে দায়ের এফআইআর

বিজেপির পঞ্চায়েত ইস্তাহারে বিতর্ক, দিলীপ ঘোষের নামে দায়ের এফআইআর

File Photo

ইস্তাহার বিতর্কে বিজেপি। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে বাংলার পরিস্থিতি ব্যাখা করতে গিয়ে ওপার বাংলার ছবি ব্যবহারের অভিযোগ রাজ্য বিজেপির বিরুদ্ধে।

  • Share this:

    #কলকাতা: ইস্তাহার বিতর্কে বিজেপি। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে বাংলার পরিস্থিতি ব্যাখা করতে গিয়ে ওপার বাংলার ছবি ব্যবহারের অভিযোগ রাজ্য বিজেপির বিরুদ্ধে। রাজনৈতিক মহলের দাবি, বিজেপির ইস্তাহারে বাংলাদেশের বিরোধী দলের ছবি ছাপা হয়েছে। দলীয় ইস্তেহারের মুখবন্ধেও তথ্য বিকৃতির অভিযোগ দিলীপ ঘোষদের বিরুদ্ধে। আর এই অভিযোগের ওপর ভিত্তি করেই দিলীপ ঘোষের নামে দায়ের হল এফআইআর ৷ এফআইআর আরও কয়েকজনের নামেও ৷ নেতাজিনগর থানায় করা হয়েছে অভিযোগ দায়ের ৷

    একদিকে আদালতের মামলার গেরো ৷ অপরদিকে, রাজ্য সরকারের সঙ্গেনির্বাচন কমিশনের মতানৈক্যের জেরে বুধবারও পঞ্চায়েত ভোটর নির্ঘন্ট নিয়ে জটিলতা কাটল না ৷ এরই মাঝে বিজেপির পঞ্চায়েত ইস্তাহার নিয়ে বিতর্ক ৷ পশ্চিমবঙ্গের আসল ছবি তুলে ধরার বদলে বাংলাদেশের অশান্তির ছবি তুলে ধরা হয়েছে । রাজনৈতিক মহলের দাবি, বিজেপির ইস্তাহারে বাংলাদেশের সন্ত্রাসের ছবি ছাপা হয়েছে।

    আরও পড়ুন 
    নির্বাচনী ইস্তাহারে বাংলাদেশের সন্ত্রাসের ছবি বাংলার বলে চালাচ্ছে বিজেপি, অভিযোগ বিরোধীদের

    এই ছবি কোনও ভাবেই কলকাতা বা রাজ্যের নয়। এই ছবি বাংলাদেশের বিরোধী দল বিএনপি সমর্থকের। একাধিক ওয়েবসাইটে উঠে এসেছে দু’হাজার তেরো সালে ফরাসি সংবাদসংস্থার তোলা বাংলাদেশের রাস্তায় হিংসাত্মক বিক্ষোভের ছবি। ক্ষমতাসীন আওয়ামি লিগ সরকারের বিরুদ্ধে সেসময় আন্দোলনের ডাক দিয়েছিল প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার দল বাংলাদেশ ন্যাশানালিস্ট পার্টি। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কিন্তু এরপরও বাংলাদেশের অশান্তির ছবিকে দলীয় ইস্তাহারে ব্যবহারের পক্ষেই সওয়াল করছেন।

    রাজ্য বিজেপি সভাপতি যাই বলুন না কেন, রাজনৈতিক মহলের দাবি, পঞ্চায়েত ভোটের ইস্তাহারে বিতর্কিত ছবি ছেপে শাসকদলের হাতেই বল তুলে দিল বিজেপি।

    শুধু ছবি নয়, ইস্তাহারের মুখবন্ধে তথ্য বিকৃতির অভিযোগও উঠেছে রাজ্যের গেরুয়া বাহিনির দিকে। ওয়াকিবহাল মহলের দাবি, এই ঘটনা প্রথম নয়। ফেক নিউজের বিরুদ্ধে আইন করতে উদ্যত বিজেপির বিরুদ্ধেই এর আগেও সোশাল ওয়েবসাইটে একাধিকবার ভুয়ো ছবি প্রকাশের অভিযোগ উঠেছে।

    First published: