corona virus btn
corona virus btn
Loading

'জুনের বিল আলাদা করা হচ্ছে,' বিদ্যুতের বিল-ধন্দে যা জানাচ্ছে CESC

'জুনের বিল আলাদা করা হচ্ছে,' বিদ্যুতের বিল-ধন্দে যা জানাচ্ছে CESC
CESC Kolkata Office

এই ধন্দের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার CESC জানাল, নতুন বিল নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে আগামী ৩ থেকে ৪ দিনের মধ্যে৷ জুনের বিল আলাদা করা হচ্ছে৷ অনেকে ইতিমধ্যেই বিল দিয়েছেন৷

  • Share this:

#কলকাতা: লক্ষ লক্ষ টাকা বিদ্যুতের বিলে নাজেহাল ও ক্ষুব্ধ গ্রাহকদের প্রতিবাদে চাপের মুখে ক্যালকাটা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কর্পোরেশন (CESC) জানিয়েছে, এপ্রিল ও মে মাসের অনাদায়ী বিল জমা দিতে হবে না৷ শুধু জুন মাসের বিল দিলেই হবে৷ সিইএসসি-র এই ঘোষণায় বিদ্যুতের বিলের পাহাড়প্রমাণ অঙ্ক না মেটানোর আপাত স্বস্তির বার্তা শোনালেও, গ্রাহকদের মধ্যে দেখা দিয়েছে ধন্দ৷ গ্রাহকদের প্রশ্ন, ইতিমধ্যেই অনেকে বিল দিয়েছেন৷ তাঁদের কী হবে? এ ছাড়া, জুনের বিল ফের আলাদা করে সিইএসসি পাঠাবে কি না, তার হিসেব কী ভাবে হবে, তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন৷

এই ধন্দের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার CESC জানাল, নতুন বিল নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে আগামী ৩ থেকে ৪ দিনের মধ্যে৷ জুনের বিল আলাদা করা হচ্ছে৷ অনেকে ইতিমধ্যেই বিল দিয়েছেন৷ তাঁদের বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে শীঘ্রই৷ আপাতত ৩ থেকে ৪ দিন সময় লাগবে৷ এপ্রিল ও মে মাস থেকে জুন মাস কী ভাবে আলাদা করা হবে, তার কাজ চলছে৷ নতুন বিল পাঠানো হবে কিনা ও যাঁরা ইতিমধ্যেই অনলাইনে বিল পেমেন্ট করেছেন, তাঁদের বিষয়েও জানিয়ে দেওয়া হবে কয়েক দিনের মধ্যেই৷

রবিবার গোটা দিন জুড়ে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও ট্যুইটারে সিইএসসি নিয়ে নানা বার্তায় ছয়লাপ হয়েছে। বাদ নেই সেলেব্রিটিরাও। কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় থেকে শুরু করে যশ, প্রত্যেকেই নিজেদের বিদ্যুতের বিলের কপি দিয়ে ট্যুইট করেন।

কলকাতা ও শহরতলি মিলিয়ে সিইএসসি-র মোট গ্রাহক সংখ্যা ২৫ লক্ষ৷

Published by: Arindam Gupta
First published: July 20, 2020, 3:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर