• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • FIGHT BETWEEN CPIM AND CONGRESS OVER BISH RANJNAN BHATTACHARYA SOCIAL MEDIA POST AKD

CPIM vs Congress: বিকাশরঞ্জনের পোস্ট নিয়ে সিপিএম-এর কৈফিয়ত চায় কংগ্রেসে, প্রশ্নের মুখে জোটের ভবিষ্য‌ত

বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যের পোস্ট ঘিরে তুমুল মতবিরোধ কংগ্রেস-সিপিএম-এর।

CPIM vs Congress| বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য দল ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন নাকি এই কটূক্তি থেকেই জোট ভাঙতে চলেছে এই নিয়েই জল্পনা তুঙ্গে।

  • Share this:

    #কলকাতা: সিপিএম-এর রাজ্যসভার সাংসদ বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যের ফেসবুক পোস্ট নিয়ে তুমুল মতবিরোধে জড়াল সিপিএম-কংগ্রেস। রাজনৈতিক মহলে রব,  জোটের কফিনে পেরেক পুতলেনবিকাশ ভট্টাচার্য। ফরওয়ার্ড ব্লকের তরফ থেকে সিপিএম-কে কংগ্রেস এবং আইএসএ  এই দুই ক্রাচ ধরে চলা দল বলে কটাক্ষের দিনেই অশান্তির কালো মেঘ সিপিএম এবং কংগ্রেসের মধ্যে। সৌজন্যে। অভিযোগ সাঁইবাড়ি কাণ্ডের স্মৃতিচারণায় বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য 'কংগ্রেসি গুন্ডা' শব্দ ব্যবহার করেছেন। যাদের সঙ্গে জোট, তাঁদের গুন্ডার তকমা দেওয়া, তাহলে কি বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য দল ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন নাকি এই কটূক্তি থেকেই জোট ভাঙতে চলেছে এই নিয়েই জল্পনা তুঙ্গে।  এর মধ্যেই সিপিএমকে সরাসরি এক হাত নিয়ে ঘটনার ব্যখ্যা চেয়ে চিঠিও পাঠিয়েছে প্রদেশ কংগ্রেস।  উল্লেখ্য বিকাশরঞ্জন নিজের বক্তব্য থেকে সরতে রাজি নন। তাঁর যুক্তি, অতীতকে অস্বীকার করে লাভ নেই, অতীতটাই সত্য।তবে কংগ্রেসের কাউকে দুঃখ দিতে চাননি তিনি. এমনটাই জানিয়েছেন।

    প্রদেশ কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সিপিএম-এর রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রকে চিঠি দিয়ে বলা হয়েছে, বিকাশ ভট্টাচার্যের এই পোস্ট সম্পর্কে তারা অবগত। ওই পোস্টে যে শব্দবন্ধ ব্যবহার করা হয়েছে কংগ্রেস সম্পর্কে তা দেশজুড়ে কংগ্রেসের মান্যতা ক্ষুন্ন করতে পারে। তাই কংগ্রেসের কাছে এই পোস্ট স্পষ্টতই অবমাননাকর নিম্নরুচির। এই পরিস্থিতিতে সিপিএম-এর দলগত অবস্থান জানতে চায় কংগ্রেস। চিঠিতে স্পষ্ট লেখা রয়েছে, কংগ্রেস পরিবার এই ঘটনায় অপমানিত বোধ করছে। প্রদেশ কংগ্রেস দ্রুত এর জবাব পাওয়ার আশা রাখে।

    প্রসঙ্গত গত কালই ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা নরেন্দ্র চট্টোপাধ্যায় সিপিএমকে এই জোটের জন্য একহাত নেন। এর আগে রাজ্য কমিটির বৈঠকেও জোট নিয়ে সরব হয়েছেন দলের বহু নেতাই। ২০১৬ বিধানসভা নির্বাচন থেকেই কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করছে সিপিএম। যদিও তার ফল কখনও খুব একটা ভালো হয়নি। এবার বামেদের আসন সংখ্যা শূন্যে  এসে ঠেকেছে। এই পরিস্থিতিতে জোট রাখা আদৌ কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা নিয়ে দলের অন্দরে নানা প্রশ্ন উঠছে। তবে সূর্যকান্ত মিশ্র স্পষ্টই জানিয়েছেন আগ বাড়িয়ে জোট ভাঙতে রাজি নয় দল। কিন্তু তিনি জোট রাখতে চাইলেও এ হেন অনভিপ্রেত ঘটনার পরে আদৌ জোট টিকবে কিনা, টিকলেও দু'পক্ষের বনিবনা হবে কিনা তাই নিয়ে গভীর প্রশ্ন উঠে যাচ্ছে।

    Published by:Arka Deb
    First published: