Home /News /kolkata /
Bowbazar House: ঝুঁকি এড়াতে আপাতত বন্ধ, চার মাস পিছোচ্ছে বউবাজারের কাজ 

Bowbazar House: ঝুঁকি এড়াতে আপাতত বন্ধ, চার মাস পিছোচ্ছে বউবাজারের কাজ 

আগামী সপ্তাহেই আসছেন জন ইন্ডিকট। মাটি পরীক্ষা করবে আইআইটি রুরকি।

  • Share this:

    #কলকাতা: ঝুঁকি এড়াতে আপাতত বউবাজারের ক্ষতিগ্রস্ত অংশে কাজ বন্ধ রাখছে KMRCL৷ বর্ষার জেরে আরও পিছোচ্ছে বউবাজারের কাজ। চার মাস কাজ পিছিয়ে যাচ্ছে। বর্ষা দীর্ঘতর হলে সেই কাজ আরও পিছিয়ে যাবে। আগামী সপ্তাহেই বউবাজার আসবেন বিশেষজ্ঞ প্রফেসর লিওনার্দো জন ইন্ডিকট। আগেরবার বউবাজারের যাবতীয় রিপোর্ট বানিয়েছিলেন তিনি। KMRCL-এর এক্সপার্ট কমিটির সদস্য এই ভূ-বিশেষজ্ঞ।

    আরও পড়ুন সমাজ উন্নতি লক্ষ্যে দক্ষতা বৃদ্ধি করতে চায় Adamas University, শীর্ষ সম্মেলনে ব্যক্ত হল উদ্দেশ্য

    অন্যদিকে নতুন করে মাটি পরীক্ষা করতে চলেছে আই আই টি রুরকি।বউবাজারের মাটি পরীক্ষার রিপোর্ট অবধি অপেক্ষা। অন্যদিকে কলকাতা পুরসভাকে ফের চিঠি দিল KMRCL৷ ১৫ নম্বর বাড়ি অত্যন্ত বিপদজনক বাড়ি। এই বাড়ি ভাঙতে চায় KMRCL৷ আপাতত একটি বাড়ি, ১৬/১ ভাঙা হচ্ছে। ১৬ নম্বর বাড়ি ভাঙার কাজ আটকে আইনি জটিলতায়।

    আপাতত স্বস্তিতে কলকাতা মেট্রো রেলওয়ে করপোরেশন লিমিটেড৷ বন্ধ হয়েছে পুরোপুরি জল বেরনো৷ কোনওভাবেই আর জল উঠছে না। যে এগারোটি জায়গা থেকে ক্রমাগত জল বেরিয়ে আসছিল তা গ্রাউটিং করে পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে জল বেরনো বন্ধ মানেই গ্রাউটিং বন্ধ করে দেওয়া হবে এমনটা নয়। এক্সটেনসিভ গ্রাউটিংয়ের কাজ চলবেই। একই সাথে আরও একটি স্বস্তির খবর, সুড়ঙ্গ নীচের অংশে বন্ধ হয়েছে মাটির নড়নচড়ন। বিভিন্ন জায়গায় বসানো মিটারে তা ইতিমধ্যেই ধরা পড়েছে। ফলে সেটেলমেন্ট হওয়ার আর কোনও সম্ভাবনা নেই। তাই কোনও বাড়িতে নতুন করে ফাটল ধরবে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

    আরও পড়ুন Kolkata News: ভোররাতে জ্বলে উঠল চাঁদনি, ভয়ঙ্কর বিপদ থেকে সরানো হল বাসিন্দাদের!

    ২০১৯ সালের মতো এ বারও সমস্যার কারণ জল চুঁইয়ে ঢোকা। টানেল বোরিং মেশিন বার করার প্রকোষ্ঠের প্রায় ৩৩.৩ মিটার নীচ থেকে ক্রমাগত জল বেরিয়ে আসছিল। মাটির নীচের প্রায় ৩৮ মিটার অংশের মধ্যে থেকে প্রায় ৯ মিটার অংশ যা এসপ্ল্যানেডের দিকের সেখানেই শুরু হয় এই সমস্যা। টানেল বোরিং মেশিন চান্ডি যে দিকে খারাপ হয়েছিল সে দিকের সুড়ঙ্গ নিচের অংশেই গত কয়েকদিনে বৃষ্টিপাতের কারণে জল ঢুকতে শুরু করে।

    Published by:Pooja Basu
    First published:

    Tags: Bowbazar, House

    পরবর্তী খবর