হোম /খবর /কলকাতা /
পেট্রোলে মিশছে ইথানল বৃষ্টির জল মিশ্রিত ইথানল! সমস্যায় রাজ্যের পেট্রোল পাম্পগুলি

EXCLUSIVE: পেট্রোলে মিশছে ইথানল বৃষ্টির জল মিশ্রিত ইথানল! বড় সমস্যায় রাজ্যের পেট্রোল পাম্পগুলি  

জল, ইথানল ও পেট্রোলের সংমিশ্রণের কারণে প্রচুর যানবাহন বিকল হয়ে পড়ার অভিযোগও সামনে আনছেন পেট্রোল পাম্প মালিকরা।

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: অনেকগুলি লক্ষ্যের মধ্যে মূল লক্ষ্য দূষণ কমানো। পেট্রোলের সঙ্গে ক্রমেই ইথানল ব্যবহারের পরিমাণ বাড়ছে। একটি তেলের ট্যাঙ্কারে চার হাজার লিটার পেট্রোলের সঙ্গে তেল কোম্পানি গুলি বর্তমানে প্রায় ১০ শতাংশ ইথানল (ethanol) মেশাচ্ছে। অর্থাৎ ৪ হাজার লিটার পেট্রোলের সঙ্গে মিশ্রিত হচ্ছে ৪০০ লিটার ইথানল। আগামী দিনে কেন্দ্রের নির্দেশ মোতাবেক আরও বেশি পরিমাণে পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল মেশানোর পরিকল্পনা রয়েছে। । কিন্তু বর্তমানে এতেই হিতে বিপরীত হয়েছে বলে দাবি পেট্রোল পাম্প মালিকদের।

এই মরশুমে কলকাতায় বৃষ্টি হয়েছে প্রচুর। এখনও হচ্ছে। অধিক পরিমাণে বৃষ্টির জেরে শহর ও শহরতলির পাম্পগুলিতে তেলের যে সমস্ত ফুয়েল রিজার্ভার রয়েছে সেখানেও জল ঢুকে বিপত্তি দেখা দিয়েছে। তবে শহর কলকাতা বা শহরতলিই শুধু নয়। সূত্রের খবর, রাজ্য জুড়ে ইন্ডিয়ান অয়েল, হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম, ভারত পেট্রোলিয়ামের নিজস্ব পেট্রোল পাম্পগুলির রিজার্ভারে জল ঢুকে বিপত্তি দেখা দিয়েছে অজস্র পেট্রোল পাম্পে। রিজার্ভারে জল ঢুকে পড়ায় সেই পেট্রোল রিজার্ভার থেকে জল মুক্ত করার কারণে মাঝেমধ্যেই গ্রাহকরা পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

এর ফলে একদিকে যেমন হয়রানির শিকার হচ্ছেন গ্রাহকরা তেমনই মালিকরাও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। টেকনিক্যাল কারণে যে তাঁরা পরিষেবা বন্ধ রেখেছেন তা উল্লেখ করে অনেক পেট্রোল পাম্পের সামনেই নজরে এল বিজ্ঞপ্তি। ইথানলের জাত শত্রু হচ্ছে জল। ফলে ইথানল মিশ্রিত পেট্রোলের সঙ্গে বৃষ্টির জল মিশে গিয়ে পেট্রোলের চরিত্রই বদলে যাচ্ছে বলে মত পেট্রোল পাম্প মালিকদের একাংশের। যার অনেক ক্ষেত্রেই প্রভাব পড়ছে যানবাহনে। এর ফলে যানবাহনের ইঞ্জিনও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

ইতিমধ্যেই পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল মেশানোর বিপক্ষে সরব হয়েছে ওয়েস্ট বেঙ্গল পেট্রোলিয়াম ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশন। সাম্প্রতিককালে এমন অনেক যানবাহন রয়েছে যেগুলি পেট্রোল চালিত। কিন্তু জল, ইথানল ও পেট্রোলের সংমিশ্রণের কারণে প্রচুর যানবাহন বিকল হয়ে পড়ার অভিযোগও সামনে আনছেন পেট্রোল পাম্প মালিকরা। তাঁদের এও অভিযোগ, 'বর্তমানে তেল কোম্পানিগুলির তরফে একপ্রকার বাধ্য করা হচ্ছে ইথানল মিশ্রিত পেট্রোল কিনতে। কেন্দ্র তথা সংশ্লিষ্ট মহলে বারবার জানিয়েও কোনও লাভ হচ্ছে না।'

দূষণ ও অন্যান্য বিষয়গুলি মাথায় রেখে শহরের পেট্রোল পাম্প মালিকরাও চাইছেন যথাযথ নিয়ম মেনে পেট্রোলে ইথানলের ব্যবহার। তবে বৃষ্টির মরসুমে পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল ব্যবহার বন্ধ করা হোক। নচেৎ লাভের থেকে ক্ষতিই বেশি, বলছেন পেট্রোল ডিলাররা। ওয়েস্টবেঙ্গল পেট্রোলিয়াম ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের তরফে এই মর্মে বারবার সরব হলেও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক কোনও রকম পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে অভিযোগ। অ্যাসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট স্নেহাশিস ভৌমিকের কথায়, 'এই পরিস্থিতিতে আমরা সমস্যায় পড়েছি। ব্যবসায়িক সুনাম নষ্ট হচ্ছে। শীঘ্রই পরিস্থিতির বদল না হলে আমরা ধর্মঘটের পথে যেতে বাধ্য হব।' তাহলে প্রশ্ন উঠছে, কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের পেট্রোল পাম্পগুলিতে এই মুহূর্তে মজুত কোটি কোটি টাকার পেট্রোল কী আজ জলে?

VENKATESWAR LAHIRI

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Petrol pump