• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ব্লু হোয়েলের ফাঁদে এবার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র, সিআইডির তৎপরতায় রক্ষা

ব্লু হোয়েলের ফাঁদে এবার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র, সিআইডির তৎপরতায় রক্ষা

ফের নীল তিমির কামড় ৷ একের পর এক ফাঁদে পড়ছে এই মারণ গেমের ৷

ফের নীল তিমির কামড় ৷ একের পর এক ফাঁদে পড়ছে এই মারণ গেমের ৷

ফের নীল তিমির কামড় ৷ একের পর এক ফাঁদে পড়ছে এই মারণ গেমের ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: ফের নীল তিমির কামড় ৷ একের পর এক ফাঁদে পড়ছে এই মারণ গেমের ৷ এবার নীল তিমির ফাঁদে পড়ল এক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র ৷ তবে মারত্মক কাণ্ড ঘটনার আগে তাকে উদ্ধার করে সিআইডি ৷ তাদের দ্রুত পদক্ষেপে প্রাণে বাঁচানো গিয়েছে ছাত্রটিকে ৷

    জানা গিয়েছে, উত্তর ২৪ পরগনার বাসিন্দা ওই ছাত্র ৷ তাঁর হাতে, পায়ে, ঠোঁটে নীল তিমির নকশা রয়েছে ৷ ব্লেড দিয়ে ওই নকশা আঁকা হয়েছে ৷ অষ্টম পর্যায় পর্যন্ত খেলেছিল ছাত্রটি ৷ কয়েকদিন বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলছিল না সে ৷ জেলা পুলিশকে বিষয়টি জানায় বন্ধুরা ৷ খবর যায় সিআইডি-র কাছে ৷ এরপর সঙ্গে সঙ্গে যোগাযোগ করা হয় তার পরিবারের সঙ্গে ৷ ছাত্রটিকে বাবা-মায়ের কাছে রাখা হয়েছে ৷

    কিছুতেই থানামো যাচ্ছে না ব্লু হোয়েল গেম ৷ ফলে ব্লু হোয়েল নিয়ে সতর্কতামূলক প্রচার শুরু করে সিআইডি তাদের ফেসবুক পেজে ৷ সিআইডি-র এক আধিকারিক জানিয়েছেন

    সিআইডির ফেসবুক পেজে প্রচার করা হয় ৷ ৫-৬ দিন আগে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন ইনজিনিয়ারিং কলেজের রেজিস্ট্রার ৷ এক ছাত্রের আচরণে সন্দেহ হয় তাঁর ৷ গোটা বিষয়টি তিনি ফোনে আমায় জানান ৷ আমি দ্রুত ছাত্রটির সঙ্গে যোগাযোগ করি ৷ সাইবার বন্ধু পরিচয়ে কথা বলি ৷ ফোনেই ছাত্রটির কাউন্সেলিং করি আমি ৷ ছাত্রটি স্বীকার করে যে ও ব্লু হোয়েল খেলছে ৷ ইতিমধ্যেই খেলাটির অষ্টম পর্যায়ে সে পৌঁছেছে ৷ আমি তাঁকে বোঝাই এটি খেলা নয় ৷ এটি মৃত্যুর হাতছানি ৷ ভিডিও কল করেও ছাত্রটির সঙ্গে কথা বলি ৷ তবে তাঁর পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে ৷ বর্তমানে সে পরিবারের সঙ্গে রয়েছে ৷

    First published: