Home /News /kolkata /
Election Commission on WB By Poll Results: নির্দেশিকা জারি নির্বাচন কমিশনের, মমতার জয়ের পরও যা করতে পারবে না তৃণমূল...

Election Commission on WB By Poll Results: নির্দেশিকা জারি নির্বাচন কমিশনের, মমতার জয়ের পরও যা করতে পারবে না তৃণমূল...

নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দেওয়া হয়, ৩ অক্টোবর রাজ্যের উপনির্বাচনের গণনা চলছে। কিন্তু এরপর রাজ্যের কোথাও কোনও বিজয় মিছিল করা যাবে না। করোনা পরিস্থিতির কারণেই এমন নির্দেশ বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। একইসঙ্গে রাজ্যের কোথাও যাতে গণনা পরবর্তী হিংসার ঘটনা না ঘটে, তা নিশ্চিত করতেও রাজ্য প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দেওয়া হয়, ৩ অক্টোবর রাজ্যের উপনির্বাচনের গণনা চলছে। কিন্তু এরপর রাজ্যের কোথাও কোনও বিজয় মিছিল করা যাবে না। করোনা পরিস্থিতির কারণেই এমন নির্দেশ বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। একইসঙ্গে রাজ্যের কোথাও যাতে গণনা পরবর্তী হিংসার ঘটনা না ঘটে, তা নিশ্চিত করতেও রাজ্য প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

Election Commission on WB By Poll Results: ভবানীপুর উপনির্বাচন ও জঙ্গিপুর-সামশেরগঞ্জের ভোটের ফল প্রকাশের পর বিজয় মিছিলের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ জারি করল নির্বাচন কমিশন।

  • Share this:

#কলকাতা: ভবানীপুর উপনির্বাচনের ভোট গণনা (Bhabanipur By Poll Results) যত গণনা এগোচ্ছে, বাকি প্রতিদ্বন্দ্বীদের থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ভোটের ব্যবধান ততই বাড়ছে। এখনও পর্যন্ত যা খবর, ১৫ তম রাউন্ডের গণনা শেষে ভবানীপুরে ৩৯ হাজার ৬৫৭ ভোটে এগিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অর্থাৎ, বিপুল ব্যবধানে যে জিততে চলেছেন মমতা, তা একপ্রকার নিশ্চিত। এরই মধ্যে কালীঘাট তো বটেই, গোটা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা আনন্দে পথে নেমে গিয়েছেন। শুধু ভবানীপুরই নয়, জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জেও জেতার পথে তৃণমূল। ফলে তৃণমূল প্রার্থীরা যে আনন্দে দিশেহারা হবেন, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে বিজয় মিছিলের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ জারি করল নির্বাচন কমিশন (Election Commission)।

এদিন নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দেওয়া হল, ৩ অক্টোবর রাজ্যের উপনির্বাচনের গণনা চলছে। কিন্তু এরপর রাজ্যের কোথাও কোনও বিজয় মিছিল করা যাবে না। করোনা পরিস্থিতির কারণেই এমন নির্দেশ বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। একইসঙ্গে রাজ্যের কোথাও যাতে গণনা পরবর্তী হিংসার ঘটনা না ঘটে, তা নিশ্চিত করতেও রাজ্য প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

কমিশনের নির্দেশিকা কমিশনের নির্দেশিকা

কমিশনের এই নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যের মন্ত্রী তথা ভবানীপুর উপনির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম সেনাপতি ফিরহাদ হাকিম বলেন, 'আমরা আনন্দ করব। খাওয়াদাওয়া করব। সবাই মিষ্টিমুখ করব। কিন্তু কোথাও কোনও বিজয় মিছিল হবে না। এটা আমরা দলীয় নীতি অনুসারেই মেনে চলব।' এদিন সকালেই মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম দাবি করেন, ভবানীপুরে মমতা ৫০-৮০ হাজার ভোটে জিতবেন। তাঁর কটাক্ষ, “বিজেপি-র ঘোষণা করে দেওয়া উচিত ছিল যে, আমরা এই লড়াইয়ে আর নেই।”

আরও পড়ুন: BJP-র 'সাধের' ৭০ ও ৭৪ নম্বরও মমতার পাশে, 'প্রথা' মেনে ৭৭-এ সেই সবুজ ঝড়!

যদিও রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে বিজয় উৎসব। বারাসাত কলোনি মোড়ে আবির খেলে,মিছিল করে বিজয়োৎসব পালন করছেন তৃণমূল কর্মী, সমর্থকরা। অন্যদিকে, ভবানীপুরের তৃণমূল কর্মী, সমর্থকদেরও উল্লাস। দলনেত্রীর জয়ের উৎসবে কালীঘাটে উৎসবে মাতলেন তৃণমূল কর্মীরা। উড়ছে সবুজ আবির।

Published by:Suman Biswas
First published:

পরবর্তী খবর