সব অভিযোগ খারিজ, তৃণমূলকে কড়া চিঠি কমিশনের

সব অভিযোগ খারিজ, তৃণমূলকে কড়া চিঠি কমিশনের

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহত হওয়ার ঘটনায় কড়া জবাব কমিশনের৷

কমিশনের এই চিঠি ঔদ্ধত্য়পূর্ণ বলে পাল্টা অভিযোগ করেছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়৷

  • Share this:

    #কলকাতা: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহত হওয়ার ঘটনায় নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়েই গুরুতর প্রশ্ন তুলেছিল তৃণমূল৷ এবার তৃণমূল নেতৃত্বকে পাল্টা কড়া চিঠি দিয়ে সেই সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দিল কমিশন৷ সূত্রের খবর, তৃণমূলের অভিযোগ কমিশনের মূল ভিত্তি নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিয়েছে বলেও চিঠিতে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে৷

    তৃণমূল নেতৃত্বের মূল অভিযোগ ছিল, বুধবার নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রীর প্রচারে যথাযথ নিরাপত্তার ব্যবস্থা ছিল না৷ আরও প্রশ্ন তোলা হয়, রাজ্যের এডিজি আইনশৃঙ্খলা, পুলিশের ডিজি-কে বদলের পরেও কেন এমন ঘটনা ঘটল?

    এ দিন রাতেই কমিশনের তরফে তৃণমূলকে চিঠি পাঠানো হয়৷ তিন পাতার চিঠিতে বলা হয়েছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যে ঘটনা ঘটেছে তা দুর্ভাগ্যজনক এবং অপ্রত্যাশিত৷ এই ঘটনার তদন্তও হচ্ছে৷ তদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী ব্য়বস্থাও নেওয়া হবে৷ তবে এর সঙ্গে তৃণমূলের করা অভিযোগের কোনও যোগ নেই৷ কারণ রাজ্য পুলিশের ডিজি-কে হঠাৎ বদল করা হয়নি৷ রাজ্যে যে দু' জন পুলিশ পর্যবেক্ষককে পাঠানো হয়েছে, তাঁদের রিপোর্টের ভিত্তিতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন৷

    পাশাপাশি কমিশনের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, সংবিধানের ৩২৪ ধারা অনুযায়ী, কমিশন লোকসভা বা বিধানসভা নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত গোটা প্রক্রিয়া পরিচালনার দায়িত্বে থাকে৷ কিন্তু রাজ্যের দৈনিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি দেখার দায়িত্ব তাদের নয়৷ ফলে এ নিয়ে কোনও রাজনৈতিক দল অভিযোগ তুললে তা কমিশনের বিবেচনা করাই উচিত নয়৷ যেভাবে তৃণমূলের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে যে নির্দিষ্ট একটি রাজনৈতিক দলের নির্দেশে কমিশন কাজ করছে, তাও কমিশনের পক্ষে অবমাননাকর বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে৷ তৃণমূলের আনা অভিযোগ যে কমিশন মোটেই ভাল ভাবে নেয়নি, তাও এই চিঠির মাধ্যমে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে৷

    কমিশনের বিরুদ্ধে সরব হয়ে এ দিন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছিলেন, নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব পাওয়ার পর প্রথমে এডিজি, তার পর ডিজি-কে বদল করল৷ সামগ্রিক ভাবে পুলিশের থেকেও বুধবারের ঘটনার দায় কমিশনের৷ পর পর দুটো বদল করে সমস্ত প্রশাসনকে রাষ্ট্রীয় প্রশাসন করার যে চেষ্টা চলছে, তা এই ঘটনায় প্রমাণিত হয়েছে৷ কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়েও কার্যত প্রশ্ন তোলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷

    কমিশনের এই চিঠি ঔদ্ধত্য়পূর্ণ বলে পাল্টা অভিযোগ করেছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়৷ তাঁর দাবি, এই ধরনের বিবৃতি দিয়ে কমিশন নিজেদের দায়িত্ব এড়াতে চাইছে৷

    এ দিনই রাজ্য সিইও দফতরে গিয়ে বুধবারের ঘটনা নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ শুক্রবার দিল্লিতে গিয়ে নির্বাচন কমিশনের সদর দফতরে গিয়ে এ নিয়ে আরও এক দফা অভিযোগ জানানোর কথা তৃণমূলের প্রতিনিধি দলের৷

    Kamalika Sen Gupta

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    লেটেস্ট খবর