• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ED SUMMONS TMC LEADER PARTHA CHATTERJEE ON I CORE CHIT FUND SCAM SB

Ed Summons Partha Chatterjee: নিজের কেন্দ্রে ভোট মিটতেই পার্থকে ডাক ইডি'র, তলব আরও এক 'জনপ্রিয়' নেতাকে

পার্থকে ডাক ইডির

একই সঙ্গে পার্থ ঘনিষ্ঠ কলকাতা পুরসভার বিদায়ী কাউন্সিলার বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্তকেও ডেকে পাঠাল ইডি।

  • Share this:

    #কলকাতা: ভোটের মুখে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে (Partha Chatterjee) তলব করেছিল CBI। আইকোর চিটফান্ড মামলায় (I-Core ChitFund Scam) পার্থকে তলব করা হয়েছিল। কিন্তু ভোটের ব্যস্ততায় সে সময় যেতে পারেননি পার্থ। পরে গত ২৭ মার্চ ফের পার্থকে নোটিশ পাঠিয়েছিল সিবিআই। বলা হয়েছিল, ৭ এপ্রিল হাজিরা দিতে হবে তাঁকে। কিন্তু গত ১০ এপ্রিল পার্থ বাবুর কেন্দ্র বেহালা পশ্চিমে ভোট ছিল, ফলে গত ৭ তারিখও ভোট-ব্যস্ততার কারণে যাওয়া হয়নি তাঁর। এবার ওই একই দুর্নীতিতে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে তলব করল এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট (ED)। একই সঙ্গে পার্থ ঘনিষ্ঠ কলকাতা পুরসভার বিদায়ী কাউন্সিলার বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্তকেও ডেকে পাঠাল ইডি।

    তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর, আইকোরের অনুষ্ঠানে দেখা গিয়েছিল শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। ভিজিল্যান্স কমিশনের চিঠি সূত্রে পার্থকে তলব করেছিল সিবিআই। যদিও এর আগে সিবিআই-এর নোটিশ প্রসঙ্গে পার্থ বলেছিলেন, 'এমন কোনও অন্যায় করিনি যে এ নিয়ে চিন্তিত হতে হবে।' আর এই তলব যে কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে বিজেপির রাজনৈতিক উদ্দেশে ব্যবহার, তাও অভিযোগ করেছিলেন পার্থ।

    প্রসঙ্গত, সারদা, রোজভ্যালির মতোই বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থা আইকোর নিয়েও তদন্তে নেমেছে কেন্দ্রীয় সংস্থা সিবিআই ও ইডি। আইকোরের মালিক অনুকুল মাইতিকে আগেই গ্রেফতার করেছিল সিবিআই। কিন্তু গত ডিসেম্বর মাসে জেলে থাকাকালীনই মৃত্যু হয় তাঁর। তদন্তকারীদের অভিযোগ, ওই অর্থলগ্নি সংস্থার এজেন্টদের বৈঠকে উপস্থিত থেকে সেখানে বিনিয়োগ করার জন্য সাধারণ মানুষকে উৎসাহিত করেছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সেই সূত্রেই তদন্তে উঠে আসে, কলকাতা পুরসভায় বিদায়ী কাউন্সিলর বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্তের সঙ্গেও ঘনিষ্ঠতা ছিল আইকোর শীর্ষ কর্তৃপক্ষের। সেই ঘনিষ্ঠতা কী সূত্রে, তা খতিয়ে দেখতে পার্থ বাবুর পাশাপাশি এবার তাঁকেও ডেকে পাঠাল ইডি।

    যদিও ভোটের ঠিক আগে থেকেই চিটফান্ড তদন্তে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির অতিসক্রিয়তা নিয়ে সরব হয়েছিল তৃণমূল। একের পর এক তৃণমূল নেতাকে ভোটের মুখে-মাঝে ডেকে পাঠানো যে সম্পূর্ণরূপেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, সেই অভিযোগই করেছে শাসক দল। পার্থ বাবু ছাড়াও এর আগে কুণাল ঘোষ, মদন মিত্র, সমীর চক্রবর্তীদের তলব করেছিল কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলি। এবার নিশানায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

    Published by:Suman Biswas
    First published: