• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Bangla News: সোশ্যাল মিডিয়ায় চাকরির বিজ্ঞাপন? খুব সাবধানে! প্রমাণ দিল নিউ টাউনের এই ঘটনা...

Bangla News: সোশ্যাল মিডিয়ায় চাকরির বিজ্ঞাপন? খুব সাবধানে! প্রমাণ দিল নিউ টাউনের এই ঘটনা...

সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁদ (প্রতীকী ছবি)

সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁদ (প্রতীকী ছবি)

Bangla News: সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞাপন দিয়ে চাকরির প্রতিশ্রুতি। বিপুল টাকা হাতানোর অভিযোগে নিউ টাউনে গ্রেফতার এক যুবক।

  • Share this:

    #কলকাতা: সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞাপন দিয়ে এয়ারপোর্টে চাকরি (Airport Job) দেওয়ার নাম করে লক্ষাধিক টাকার প্রতারণা (Fraud in West Bengal)। নিজেকে এয়ারপোর্ট অথরিটির স্টাফ বলে পরিচিত দিত অভিযুক্ত। অভিযোগের ভিত্তিতে নিউটাউনের আকাঙ্খা মোড়ের কাছ থেকে কুনাল সাহা নামে প্রতারককে গ্রেফতার করল ইকোপার্ক থানার পুলিশ। রবিবার ধৃতকে বারাসত আদালতে তোলা হবে। তাকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে পুলিশ।

    পুলিশ সূত্রে খবর, পূর্ব বর্ধমানের বাসিন্দা এক যুবক ইকোপার্ক থানাতে অভিযোগ করেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি বিজ্ঞাপন দেখে সেখানে দেওয়া ফোন নম্বরে যোগাযোগ করা হলে কুনাল সাহা নামে ওই ব্যক্তি নিজেকে এয়ারপোর্ট অথরিটির স্টাফ বলে পরিচয় দেন এবং বলেন, এয়ারপোর্টে (Kolkata Airport) চাকরি পাইয়ে দেবেন তার বিনিময়ে টাকা দিতে হবে।

    আরও পড়ুন: রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে 'অ্যাসাইনমেন্ট', প্রথম বড় দায়িত্বেই টগবগে তৃণমূলের বাবুল সুপ্রিয়!

    এই বিজ্ঞাপন দেখে শুধু একজন নয়, বেশ কিছু যুবক যোগাযোগ করে কুনাল সাহার সঙ্গে এবং তাদের ডকুমেন্টস জমা দেন। এর পাশাপাশি সব মিলিয়ে প্রায় ১০ লক্ষ টাকা মতো কুনাল সাহার হাতে তাঁরা তুলে দেন চাকরি পাওয়ার আশায়। তবে, বেশ কিছুদিন কেটে যাওয়ার পরেও কোন রকম সদুত্তর না পাওয়ায় তাঁরা বুঝতে পারেন, আসলে প্রতারিত হয়েছেন তাঁরা।

    আরও পড়ুন: সর্বস্ব খোয়ানোর আগে এখনই সাবধান হোন, যেভাবে ATM জালিয়াতি করছিল এই জামতারা গ্যাং!

    এরপরই শনিবার ওই যুবকরা ইকোপার্ক থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার রাতে নিউটাউন আকাঙ্খা মোড় এলাকা থেকে কুনাল সাহাকে গ্রেফতার করে ইকোপার্ক থানার পুলিশ। রবিবার ধৃতকে বারাসত আদালতে তোলা হবে। নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে পুলিশ। ধৃতকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে এই প্রতারণা চক্রের সঙ্গে আর কে বা কারা জড়িত আছে, তা তদন্ত করবে ইকোপার্ক থানার পুলিশ।

    Published by:Suman Biswas
    First published: