Home /News /kolkata /

আমফানের জেরে অগ্নিমূল্য বাজার! হানা দিয়ে দাম নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা ইবি-র

আমফানের জেরে অগ্নিমূল্য বাজার! হানা দিয়ে দাম নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা ইবি-র

ফুলবাগান বাজার, বেলেঘাটার রাসমনি বাজার, শ্যামবাজার, সরকার বাজার, মানিকতলা বাজার সহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখলেন ইবি-র অফিসারা

  • Share this:

#কলকাতা: এ যেন মরার উপর খাঁড়ার ঘা, করোনায় অনেকেই বেকার তার উপর আমফানের জেরে হু হু বেড়েছে জিনিসপত্রের দাম। বাজারে সব্জির দাম শুনে অনেকেই মেজাজ ধরে রাখতে পাচ্ছেন না। আমফানের পর বাজারের দাম হেঁশেলে আগুন ধরার মত। এই অবস্থায় যখন দাম শুনে দীর্ঘ নিশ্বাস ফেলছে শহরবাসী, তখনই দাম নিয়ন্ত্রণের কথা ভাবছে পুলিশ।

বুধবার শহরের বিভিন্ন বাজারে ঘুরে দেখলো কলকাতা পুলিশের ইবি। ফুলবাগান বাজার, বেলেঘাটার রাসমনি বাজার, শ্যামবাজার, সরকার বাজার, মানিকতলা বাজার সহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখলেন ইবি-র অফিসারা। শহরের বিভিন্ন বাজার ঘুরে অফিসারা দেখলেন বাজারের দামের তারতম্য।

ইবি-র অভিযানে স্পষ্ট হল পাইকারি ও খুচরো বাজারের দামের ফারাক। যে দাম দেখে ক্রেতারা তো দূরে থাক, ইবি-র অফিসারদেরই চোখ কপালে। সব্জির ও মাংসের দাম বেড়েছে প্রায় কেজি প্রতি ২০-৩০ টাকা। যে দাম শুনে ইবি-র অফিসারদের সঙ্গে বাদানুবাদ শুরু বিক্রেতাদের। বুধবারের অভিযানে কিছুটা হলেও কম কমতে পারে বলে মনে করেন ইবি-র অফিসারা। বিভিন্ন জায়গায় বাজারে বিভিন্ন দামের অভিযোগ আসত ক্রেতাদের তরফে।

এদিনের অভিযানে কলকাতা পুলিশের ইবি-র অফিসারা যে দাম শুনলেন একইদাম। রেবা কর্মকার অনেকদিন ধরেই বাজার করেন মানিকতলা বাজারে। সকাল সকাল বাজারে এসে টাটকা মাছ তার পছন্দ। আমফনের পরে বাজারে এসে কপালে হাত রেবা দেবীর। তিনি জানালেন,  দাম প্রতিবছরই একটু একটু করে জামাই ষষ্ঠীর আগেই বাড়ে কিন্তু আমফনের পর এত বাজারে দাম হবে তা জানা ছিল না। আমফনের জন্য যে দাম এখন পাচ্ছি,  জামাইষষ্ঠীতে তার দাম আরও বাড়লেই বিপদ। শ্যামবাজারে এসেছিলেন সমর নস্কর। ইবি-র অভিযান দেখে বললেন, ওনারা গেলেই দাম কমে আবার বাজার ছাড়লেই দাম আগের মত, লাভ কি?

Susovan Bhattacharjee

Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: Cyclone Amphan, EB, Market Price

পরবর্তী খবর