corona virus btn
corona virus btn
Loading

লক ডাউনঃ সচেতনতা শিকেয়, দৈনন্দিন রসদ সংগ্রহে বাজারে বাজারে উপচে পড়া ভিড়

লক ডাউনঃ সচেতনতা শিকেয়, দৈনন্দিন রসদ সংগ্রহে বাজারে বাজারে উপচে পড়া ভিড়

করোনা সংক্রমণ রুখতে আজ সোমবার বিকেল থেকে শুরু হচ্ছে লক ডাউন।

  • Share this:

#কলকাতাঃ রাজ্যে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এমতাবস্থায় গোষ্ঠীসংক্রমণ রুখতে ২৩ মার্চ বিকেল পাঁচটা থেকে ২৭ মার্চ মধ্যরাত পর্যন্ত রাজ্যে লক ডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। কলকাতা-সহ উত্তর দিনাজপুর, মালদহ, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, হাওড়া, পশ্চিম বর্ধমান জেলা শহরে সোমবার বিকেল পাঁচটা থেকে ২৭ মার্চ মধ্যরাত পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। লক ডাউন ঘোষণার পরই সপ্তাহের প্রথমদিন বাজারে গিয়ে দেখা গেল বাজার সারতে ক্রেতাদের লম্বা লাইন। সকলেরই মনে একটাই ভয়, যদি আজ বিকালের পর থেকে আর কিছু না পাওয়া যায়। তাহলে তো না খেতে পেয়ে মরতে হবে!

উত্তর কলকাতার মানিকতলা বাজার থেকে দক্ষিণ কলকাতার গড়িয়াহাট বা লেক মার্কেট। ভিড় উপচে পড়েছে সর্বত্র। লকডাউনের সময়ে যাতে দৈনন্দিন ডাল-ভাতে  অন্তত টান না পড়ে, তাই বহু মানুষ প্রয়োজনীয় জিনিস সংগ্রহ করে বেরিয়ে পড়েছেন। যদিও রাজ্য সরকারের তপ্রফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, লক ডাউন চলাকালীনও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য মিলবে। কাঁচা সবজি, মাছ, মাংসের বাজার খোলা থাকবে। পাওয়া যাবে দুধ। যদিও তার পরেও সবজি, মাছের জোগান কেমন থাকবে, তা নিয়ে ঘোর চিন্তায় সাধারণ মানুষ। ক্রেতাদের দাবি, কাঁচা সবজি আসে মূলত বিভিন্ন জেলা থেকে লোকাল ট্রেনে করে। কিন্তু ২২ মার্চ রাত থেকে যাত্রীবাহী রেল পরিষেবা একেবারে বন্ধ। পাশাপাশি মাছের জোগান আসে ট্রাকের মাধ্যমে। সেগুলো বন্ধ করে দেওয়া হলে বাজারে মাছ এসে পৌছবে না সময়ে। ফলে খাদ্য সঙ্কটে পড়তে হবে। তাই আগে থেকেই চলছে সংগ্রহ করে রাখার প্রক্রিয়া।

যদি এভাবে রাজ্যের বিভিন্ন বাজারগুলিতে মানুষ বাজার করে আসা চিন্তিত   অনেকেই। সচেতন নাগরিকদের মতে, এভাবে মানুষ বাজারে ভিড় জমানোয়  আনেকাংশে বেড়ে যাচ্ছে সংক্রমণের মাত্রা। যা ভয়াবহ হয়ে উঠতে পারে অচিরেই। এই একই মোট বিশেষজ্ঞদেরও। তাঁদের মতে মানুষ যেভাবে আজ সকাল থেকে ভিড় জমিয়েছেন বাজারে তাতে সংক্রমন বাড়লে অবাক হাওয়ার কিছু নেই। কারণ, বাজারে বহু মানুষের আসেন। তাঁদের  কারও কোনও সংক্রমণ রয়েছে কিনা, তিনি পাশের লোকের সঙ্গে এক মিটার দুরত্ব বজায় রয়েছে কিনা, তা খেয়াল করছেন না অনেকেই। ফলে বিপদ আসন্ন বলতে দ্বিধা নেই।

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রমণ রুখতে আজ সোমবার বিকেল থেকে শুরু হচ্ছে লক  ডাউন। আগের দিন রবিবার ছিল জনতা কার্ফু। এই অবস্থায় চার দিনের রসদ সংগ্রহ করতে জেলায় জেলায় বিভিন্ন বাজারে ভিড় শুরু হয়েছে। বাড়তি চাহিদার সুযোগে বাজারে কোনও কোনও পণ্যের দাম অন্য দিনের চেয়ে একটু বেশি বলেও অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে।
First published: March 23, 2020, 1:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर