Madan Mitra: দুয়ারে শুকনো খাবার চালু করছেন মদন মিত্র 

Madan Mitra

এবার কামারহাটি (Madan Mitra Kamarhati) এলাকায় সাহায্য প্রাপ্ত মানুষের জন্যে চালু করা হচ্ছে দুয়ারে শুকনো খাবার। যা পাওয়ার জন্যে আবেদন জানাতে হবে ফোন করে।

  • Share this:

#কলকাতা:  এবার দুয়ারে শুকনো খাবার। দুয়ারে রেশন প্রকল্প ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই সেই প্রকল্পের কাজ পরীক্ষামূলক ভাবে  শুরু হয়ে গেছে। এবার কামারহাটি এলাকায় সাহায্য প্রাপ্ত মানুষের জন্যে চালু করা হচ্ছে দুয়ারে শুকনো খাবার। যা পাওয়ার জন্যে আবেদন জানাতে হবে ফোন করে। হোয়াটসঅ্যাপ করলেও মিলবে সুবিধা এমনটাই জানিয়েছেন কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র। কীভাবে যোগাযোগ করবেন তার বিধানসভা এলাকার মানুষ। মদন মিত্র ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তার নিজের ব্যক্তিগত নম্বর সহ তিনটি নম্বর দিয়েছেন। যেখানে মানুষ যোগাযোগ করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন কামারহাটির বিধায়ক। নম্বর তিনটি হল 9903389111, 9903378111 ও  842066666 যেখানে যোগাযোগ করতে বলছেন বিধায়ক।

তিনি জানিয়েছেন, "ত্যাগেই আনন্দ। আমার অনেক কিছু আছে। কত মানুষের কত কিছু প্রয়োজন। সেই সাহায্য পৌঁছে দেওয়াই আমার কাজ। আমি তাই বলছি এই সময়ে আপনাদের কোথাও যেতে হবে না। যাদের সাহায্য দরকার। তারা আমাদের এই তিন মোবাইল নম্বর মারফত যোগাযোগ করুক। সাহায্য ঠিক চলে যাবে।" প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন ধরেই একাধিক এলাকায় খাবার দেওয়ার কাজ সারছিলেন মদন মিত্র। তবে কামারহাটির প্রতি বরাবরই তিনি আবেগপ্রবণ। সেই জন্যেই বলছেন, "আপনাদের দ্বারা আমি নির্বাচিত। তাই আপনাদের সব প্রয়োজনে আমি আছি আপনাদের পাশে।" এর পাশাপাশি মদন মিত্র জানিয়েছেন ইয়াসের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে সাহায্য করার জন্যে।

তিনি উদাহরণ দিয়েছেন তাঁর বিধানসভা এলাকায় প্রায় ১০০টি গ্রুপ আছে যাদের তিনি চেনেন, তারা বিভিন্ন উপকূলীয় এলাকায় গিয়ে ত্রাণ বিলি করছেন। এমনকি মদন মিত্র চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বলছেন তাঁর এলাকার মানুষরাই সাগরে গিয়ে ত্রাণ বিলি করে এসেছেন। নিজের এলাকার মানুষের সুবিধার জন্যে জানিয়েছেন কোথায় কোথায় মা ক্যান্টিন চালু করেছেন। নিজের এলাকার মানুষদের কাজে লাগতে পেরে তিনি খুশি বলে জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়া লাইভে এসে। তার কথায়, আমার এলাকার মানুষ কোনও জয়যাত্রা চাইছে না। ঘোড়ার গাড়ি, টাকা-পয়সা, মাংস কিছুই চায়না। তারা শুধু ভাল ভাবে থাকতে চাইছে। তাই তিনি বলেছেন, "আমার চাহিদা একটাই, মানুষ আমাদের ভালবাসুন"।

Published by:Pooja Basu
First published: