corona virus btn
corona virus btn
Loading

মধ্যরাতে মদের আসরে প্রবল বচসা, বাধা দেওয়ায় মাথা থেঁতলে খুন সিভিক ভলান্টিয়ার, গ্রেফতার ৩

মধ্যরাতে মদের আসরে প্রবল বচসা, বাধা দেওয়ায় মাথা থেঁতলে খুন সিভিক ভলান্টিয়ার, গ্রেফতার ৩
প্রতীকী ছবি

নেশার আসরে গোলমাল হচ্ছে শুনে ডিউটিতে না থাকা সত্ত্বেও ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়েছিলেন সিভিক ভলিন্টিয়ার এরশাদ হোসেন ।

  • Share this:

#কলকাতা: নেশার আসরে গোলমাল হচ্ছে শুনে ডিউটিতে না থাকা সত্ত্বেও ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়েছিলেন সিভিক ভলিন্টিয়ার এরশাদ হোসেন (৩৬)। এরশাদ ময়দান থানার সিভিক ভলেন্টিয়ার। শনিবার রাত বারোটা নাগাদ হেস্টিংস ব্রিজের নিচে মদের আসর বসানোর জায়গা নিয়ে গোলমাল চলছিল দুই দল যুবকের মধ্যে সেই খবর কানে আসে তাঁর। এরশাদ সেখানে গিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্টা করেন। একদল যুবক তার উপর চড়াও হয়। তাকে ধাক্কা দিয়ে সেখান থেকে চলে যেতে বলা হয়। তিনি যেতে না চাইলে একটি আস্ত ইট এরশাদের মাথায় ছুড়ে মারা হয়। ইটের আঘাতেই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন এরশাদ। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, সিভিক ভলিন্টিয়ার এরশাদের ঘোড়ার গাড়িরও ব্যবসা রয়েছে। শনিবার রাতে ব্রিজের নিচে ঘোড়াকে খাবার দিতে গিয়েছিলেন তিনি। সেই সময় গোলমালের শব্দ শুনে সেখানে ছুটে যান। যার পরিণতিতে তাঁকে খুন হতে হয়।

ইতিমধ্যেই হেস্টিংস থানার পুলিশ খুনের মামলা রুজু করেছে। এরশাদকে খুনের অভিযোগে সফেদ রহমান, অজয় রায় এবং অভিষেক সিংহ নামের তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আর কেউ এই খুনের সঙ্গে জড়িত কিনা তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। পাশাপাশি ধৃতদের জেরা করে খুনের কারণ জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে দু'পক্ষের বচসার মাঝে পড়ার কারণেই তাকে খুন করা হল, নাকি এর পেছনে কোনও পরিকল্পনা রয়েছে তা জানার চেষ্টা করছে তদন্তকারীরা।

সিভিক ভলিন্টিয়ার এরশাদের ভাইয়ের অভিযোগ, "হেস্টিংস ব্রিজের নিচে রোজই গাঁজা বিক্রি হয়। দাদা উদ্যোগী হয়ে সেই গাঁজার ব্যবসা বন্ধের চেষ্টা করে। পুলিশকে নিয়ে গিয়ে হেস্টিংস ব্রিজের নিচে অভিযান চালায়। যারা সেই সময় গ্রেফতার হয়েছিল, তারাই পরিকল্পনা করে দাদাকে খুন করেছে। ভাল কাজ করার জন্যই খুন হতে হল দাদাকে। আমি দোষীদের শাস্তি চাই।" এ দিকে, এরশাদ সঠিক বিচার পাবে বলে পরিবারকে আশ্বাস দিয়েছে লালবাজার।

SUJOY PAL

Published by: Shubhagata Dey
First published: August 2, 2020, 9:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर