corona virus btn
corona virus btn
Loading

কেউ ডাক্তার, কেউ ইঞ্জিনিয়ার, এখন কাজ করছেন সাধারণকে অন্ন জোগানোর

কেউ ডাক্তার, কেউ ইঞ্জিনিয়ার, এখন কাজ করছেন সাধারণকে অন্ন জোগানোর

পাড়ার সুনাম আছে দারুণ কালী পুজোর ভোগ হয়। দক্ষিণ কলকাতায় বেশ জাঁক জমক করেই মায়ের আরাধনা করা হয়।

  • Share this:

#কলকাতা: পাড়ার সুনাম আছে দারুণ কালী পুজোর ভোগ হয়। দক্ষিণ কলকাতায় বেশ জাঁক জমক করেই মায়ের আরাধনা করা হয়। করোনা পরিস্থিতিতে এবার সেই পুজো পাঠ হবে কিনা তা নিয়ে সংশয় আছে। পুজো হোক বা না হোক সাধারণের পাশে দাঁড়ানোর তো এটাই সময়। সেই উদ্যোগেই এবার লক্ষী, ভোলা বা অরুণের পাশে দাঁড়াল বালিগঞ্জের নতুন আলোক ক্লাব। কর্ণফিল্ড রোডের এই ক্লাব এখন বহু মানুষের অন্ন জোগানোর চেষ্টা করছে। ক্লাবের সদস্যদের কেউ ব্রিজ তৈরি করেন। কেউ আবার ভাঙা সেতুর বা স্থাপত্যের নকশা পুনর্গঠন এর কাজে জড়িত থাকেন। কেউ আছেন যিনি রোগী সুস্থ করেন তো কেউ আবার সরকারি পলিসি নিয়ে প্রতিদিন ব্যস্ত থাকেন। আপাতত সকলেই এক সাথে ব্যস্ত সাধারণ মানুষের জন্য অন্ন সংস্থান করতে। যারা প্রাপক তাদের অধিকাংশ জনই দিনমজুর। সাধারণ পরিস্থিতিতে কখনও গ্যারাজে, কখনও ট্যাক্সি চালিয়ে, কেউ আবার ফাই ফরমাশ খেটে তো কেউ আবার চানা অথবা বেলুন বিক্রি করে দিন কাটায়। লকডাউনের জেরে প্রত্যকের আয় শুন্যে গিয়ে ঠেকেছে৷ ফলে এই সমস্ত মানুষগুলির কাছে কোনও না কোনও সংস্থা বা ক্লাব থেকে পাওয়া খাবার বা খাদ্য সামগ্রী একমাত্র পেট চালানোর উপায়। এই অবস্থাতেই কর্ণফিল্ড রোডের মানুষদের এগিয়ে আসায় রোজগার হারানো মানুষের পেট চলছে। আপাতত ২ কেজি চাল, ৫০০ গ্রাম মুগ ডাল, ২ কেজি আলু ও এক প্যাকেট করে বিস্কুট দেওয়া হয়েছে। আবার কখনও দেওয়া হচ্ছে ২ কেজি আটা, ৫০০ গ্রাম কাবলি ছোলা, ২ কেজি আলু ও এক প্যাকেট করে বিস্কুট। পেশায় ইঞ্জিনিয়ার সুপ্রিয় ভৌমিক এই কাজের সাথে যুক্ত। তিনি বলেন, "যাদের কে সাহায্য করা হচ্ছে তারা আমাদের আশে পাশেই প্রতিদিন ঘুরে বেড়ান। এখন একটা সমস্যায় পড়েছেন। তাই আমরা সাহায্য করছি সাধ্য মতো।" এই ক্লাবের সদস্য চিকিৎসক জ্যোতি শংকর রুদ্র বলেন, "ভবিষ্যতে এই মানুষগুলিও তো আমাদের সাহায্য করতে পারেন। তাই আমরা পাশে দাঁড়িয়েছি।" ক্লাবের সদস্যরা মনে করেন, এই কঠিন সময়ে সাধারণ মানুষের পাশে না দাঁড়ালে চলবে কি করে। তাই মাতৃ দিবসে যারা মায়ের আরাধনা করেন তারা এখন ব্যস্ত সাধারণ মানুষ যারা সমস্যায় আছেন তাদের পাশে দাঁড়াতে।

Published by: Bangla Editor
First published: May 10, 2020, 6:09 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर