উচ্চমাধ্যমিকে ৫০ শতাংশ নম্বর প্রয়োজন, শিক্ষকতার পাঠ্যক্রমে আবেদন করুন অনলাইনেই

করোনা আবহের জন্য এ বার পুরো প্রক্রিয়াটাই অনলাইনে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

করোনা আবহের জন্য এ বার পুরো প্রক্রিয়াটাই অনলাইনে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

  • Share this:

PARADIP GHOSH #কলকাতা: উচ্চমাধ্যমিকে রাজ‍্যের সফল ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সুখবর। প্রাথমিক ও উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষকতার জন্য ডিপ্লোমা-ইন-এলিমিনেটর এডুকেশনের নোটিফিকেশন জারি করে দিল রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। ১ অগাস্ট থেকে ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় রাজ্যের সফল ছাত্র ছাত্রীরা।

সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য যোগ্যতা মান রাখা হয়েছে ৫০ শতাংশ নম্বর। সিডিউল কাস্ট, সিডিউল ট্রাইব ও ওবিসি ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ৪৫ শতাংশ নম্বর পেলেই আবেদন করা যাবে ডিপ্লোমা-ইন-এলিমিনেটর এডুকেশন পাঠ্যক্রমের জন্য। যে সকল ছাত্র-ছাত্রীদের ঘরে কম্পিউটারের সুযোগ সুবিধা নেই, তাঁরা রাজ্যের যে কোনও প্রান্তে অরূপস কমন সার্ভিস সেন্টারে যোগাযোগ করে বিনামূল্যে আবেদন পত্র জমা করতে পারবেন। করোনা আবহের জন্য এ বার পুরো প্রক্রিয়াটাই অনলাইনে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

আবেদন পত্র অনলাইনে জমা দেওয়ার সময় মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড, উচ্চ-মাধ্যমিকের মার্কশিট, সেলফ অ্যাটেস্টেড ফটো, কাস্টের শংসাপত্র সহ জরুরী নথিপত্র স্ক্যান করে অনলাইনে জমা দিতে হবে। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের ওয়েবসাইট www.wbbpe.org ও http://wbbprimaryeducation.org এর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে সকল ছাত্রছাত্রীকে। প্রাথমিক ও উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষকতার জন্য ডিপ্লোমা-ইন-এলিমিনেটর এডুকেশনে রাজ্যের মোট ৬৪৯ টি প্রতিষ্ঠানে পাঠ্যক্রম পড়ানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই বছর এই পাঠ‍্যক্রমে মোট আসনের সংখ্যা ৪৫ হাজার ২০০।

এ বার  প্রথম সাঁওতালিদের জন্য অলচিকি ভাষায় ৫০ টি আসন সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ২২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে মেধা তালিকা প্রকাশ করে সংশ্লিষ্ট কলেজ গুলোর কাছে যোগ্যতা মান উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীদের নামের তালিকা পাঠিয়ে দেওয়া হবে। বর্তমান কোভিড পরিস্থিতিতে আবেদন করার ফি বাবদ কত টাকা জমা দিতে হবে, সে বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

Published by:Simli Raha
First published: