• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • অমিত শাহ মালা দিয়েছেন অতএব ওটাই বীরসার মূর্তি, মানতে হবে, মূর্তি বিতর্কে দিলীপ ঘোষের যুক্তি!

অমিত শাহ মালা দিয়েছেন অতএব ওটাই বীরসার মূর্তি, মানতে হবে, মূর্তি বিতর্কে দিলীপ ঘোষের যুক্তি!

সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপ ঘোষ। ডানপাশে মাল্যদানের দৃশ্য।

সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপ ঘোষ। ডানপাশে মাল্যদানের দৃশ্য।

কলকাতা ছাড়াও অমিত শাহ বৈঠকের এপিসেন্টার হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন বাঁকুড়াকে। সেখানেই বিতর্কের জন্ম হয়। বিজেপি ঘোষণা করেছিল আদিবাসী বাড়িতে খাওয়ার পাশাপাশি বীরসা মুণ্ডার মূর্তিতে মালা দেবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

  • Share this:

    #কলকাতা: বীরসা মুণ্ডা নাকি জনৈক আদিবাসী শিকারী, কাকে মালা দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী? রাজ্য জোড় বিতর্কের আবহে মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর দাবি বীরসা মুণ্ডা ভেবেই ওই মূর্তিতে মালা দিয়েছিলেন শাহ। অতএব এটি বীরসার মুক্তি।

    দু'রাত তিনদিনের জন্য বাংলা সফরে এসেছিলেন অমিত শাহ। উদ্দেশ্য ছিল ঘর গোছানো। কলকাতা ছাড়াও অমিত শাহ বৈঠকের এপিসেন্টার হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন বাঁকুড়াকে। সেখানেই বিতর্কের জন্ম হয়। বিজেপি ঘোষণা করেছিল আদিবাসী বাড়িতে খাওয়ার পাশাপাশি বীরসা মুণ্ডার মূর্তিতে মালা দেবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে দেখা যায় বাঁকুড়ার পেয়ারাবাগানে একটি মূর্তির পায়ে অর্ঘ্য দেন শ্রী শাহ। স্থানীয় মানুষই বলেন ওটা বীরসা নয়, জনৈক আদিবাসী শিকারি। এমনও শোনা যায়,এই সুচি বদলে ক্ষুব্ধ আদিবাসী সংগঠন ভারত জাকাত মাঝি পরগণা মহল। বিজেপির বাঁকুড়া জেলা সভাপতি বিবেকানন্দ পাত্র স্বীকারও করে নেন ওটা বীরসার মূর্তি নয়।

    কিন্তু এসব মানতে রাজি নন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিলীপের কথায়,"ওই মূর্তিকে বীরসা মুণ্ডা ভেবেই মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাল্যদান করেছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঘোষণা করার পর ওটা আজ থেকে বীরসা মুণ্ডারই মূর্তি। এটা আজ থেকে মেনে নিতে হবে।"

    তিনি এদিন বৈঠকে অভিযোগের সুরে বলেন, "ওখানে বীরসার মূর্তিই ছিল, সেটা সরকারই সরিয়েছে।" দিলীপের যুক্তি বীরসাকে সরিয়ে সরকার কি তবে একজন শিকারীর মূর্তি বসিয়ে দিল? তিনি প্রশ্নের সুরেই জানতে চান, বীরসাকে একজন সাধারণ শিকারী হিসেবে দেখে নাকি বিপ্লবী হিসেবে দেখে?

    বৈঠকে আরও নানা যুক্তি প্রতিযুক্তি চলল, কিন্তু মূর্তিটি কার, প্রশ্ন রইলই, উত্তর অন্তর্যামীর কাছেই রয়েছে।

    Published by:Arka Deb
    First published: