"এঁরাই সত্যিকারের দেশদ্রোহী। এঁরা তাবেদার, পরজীবী !" বিদ্বজ্জনদের কটাক্ষ করে মন্তব্য দিলীপ ঘোষের

এ রাজ্যে আগে অনেক দলিতের মৃত্যু হয়েছে। তখন চোখে ঠুলি পড়েছিলেন কেন? এখন এঁদের রোজগার বন্ধ হয়ে যাচ্ছে তার জন্যই প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখছেন

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 24, 2019 10:00 PM IST
photo source collected
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 24, 2019 10:00 PM IST

#কলকাতা: দেশের অসহিষ্ণুতার পরিস্থিতি দিন দিন বাড়ছে। সারা ভারতে বাড়ছে গণপিটুনির ঘটনাও। দেশজুড়ে এমন ঘটনার প্রতিবাদ হওয়া উচিত। বুধবার বিকেলে সাংবাদিক সম্মেলন করে এমন কথাই বললেন অপর্ণা সেন সহ আরও অনেক বিদ্বজনেরা। অসহিষ্ণুতা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি লিখেছেন বিদ্বজনেরা। দেশের বিদ্বজ্জনদের সেই তালিকায় নাম রয়েছে মোট ৪০০ জনের। সেই তালিকা থেকে বাদ যাননি সাহিত্য, সিনেমা, সংগীত জগতের একাধিক ব্যক্তিত্ব থেকে বৈজ্ঞানিক, ইতিহাসবিদ। পশ্চিমবঙ্গ থেকে অপর্ণা সেন, কৌশিক সেন, অনুপম রায়, রূপম ইসলামের মতো ব্যক্তিত্বরাও তাতে স্বাক্ষর করেছেন। এই নিয়েই বুধবার বিকেলে একটি সাংবাদিক বৈঠক করেন তাঁরা। বিদ্বজ্জনদের এই পদক্ষেপকে সমর্থন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে বিশিষ্টজনদের এই চিঠিকে ভাল চোখে দেখছেন না বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষ আজ বিদ্বজ্জনদের আক্রমন করে বলেন, " এঁরাই সত্যিকারের দেশদ্রোহী। এঁরা তাবেদার, পরজীবী। এঁরাই দেশকে লুঠে খেয়েছেন। এ রাজ্যে আগে অনেক দলিতের মৃত্যু হয়েছে। তখন চোখে ঠুলি পড়েছিলেন কেন? এখন এঁদের রোজগার বন্ধ হয়ে যাচ্ছে তার জন্যই প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখছেন। এঁরা যেখানে যাবেন সেখানে আমরা ধরনা দেব। পশ্চিমবঙ্গ থেকে এঁদের বেরোতে দেব না।" বিশিষ্টদের নিয়ে দিলীপের এই মন্তব্যে চাঞ্চল্য তৈরি হয়।

First published: 09:59:52 PM Jul 24, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर