• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • DILIP GHOSH CLAIMS THAT BJP IS NOT IS FAVOUR OF DIVIDING BENGAL DMG

Dilip Ghosh: বাংলা ভাগ চায়না বিজেপি, দাবি দিলীপের! দলেরই বিধায়কের গলায় উল্টো সুর

দিলীপ ঘোষ৷

Dilip Ghosh: বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এ কথা বললেও ডাবগ্রাম ফুলবাড়ির বিজেপি বিধায়ক শিখা চট্টোপাধ্যায় এ দিন পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবিতেই সরব হয়েছেন৷

  • Share this:

    #কলকাতা: বিজেপি বাংলা ভাগের পক্ষে নয়৷ এ দিনও জোর গলায় এমনই দাবি করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ কিন্তু দলের রাজ্য সভাপতি যখন এ কথা বলছেন, তখন পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবিতে সরব হলেন আরও এক বিজেপি বিধায়ক৷ ডাবগ্রাম- ফুলবাড়ির বিজেপি বিধায়ক শিখা চট্টোপাধ্যায়ও এ দিন অনুন্নয়নের যুক্তি দেখিয়ে একই দাবি করেছেন ৷ তাঁর দাবি, বাধ্য হয়েই উত্তরবঙ্গের মানুষ পৃথক রাজ্যের দাবি তুলছে৷

    পৃথক উত্তরবঙ্গ রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের দাবি কয়েকদিন ধরেই সরব হয়েছেন আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সাংসদ জন বার্লা৷ আবার জন বার্লার সুরে সুর মিলিয়ে পৃথক জঙ্গলমঙ্গল বা রাঢ়বঙ্গ রাজ্যের দাবি তুলেছেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ৷ এ দিন জন বার্লার বক্তব্যকে কার্যত সমর্থন করেছেন কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকও৷

    দলীয় সাংসদরা বাংলা ভাগের এ হেন দাবি তোলায় এই বিষয়ে অবস্থান নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে৷ কারণ বিজেপি নেতারা বলছেন, রাজ্য ভাগের দাবি দলীয় সাংসদদের ব্যক্তিগত মতামত৷ কিন্তু দলের তরফে নিজেদের সাংসদদের এই ধরনের বক্তব্য রাখা থেকে বিরত করছে না কেন, সেই প্রশ্ন উঠছে৷

    এ দিন এ প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, 'বঙ্গভঙ্গের দাবি কেউ করেনি৷ কিন্তু স্বাধীনকার পর থেকেই উত্তরবঙ্গ এবং জঙ্গলমহল বঞ্চিত৷ সেই কারণে ওই এলাকার মানুষ স্বাধীনতা, মুক্তির জন্য বিরোধী দলকে ভোট দিচ্ছে৷ রাজ্য সরকার সেখানকার মানুষের উন্নয়নে কাজ করুক, তাঁদের অধিকার ফিরিয়ে দিক৷ মানুষের যে সরকারের উপরে বিশ্বাস নেই তা স্পষ্ট৷'

    বিজেপি রাজ্য সভাপতি এ কথা বললেও ডাবগ্রাম ফুলবাড়ির বিজেপি বিধায়ক শিখা চট্টোপাধ্যায় এ দিন পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবিতেই সরব হয়েছেন৷ তাঁর অভিযোগ, 'উত্তরবঙ্গের মানুষ বরাবর বঞ্চিত৷ সিপিএম সরকারের মতো তৃণমূলের শাসনেও এই অঞ্চলে কোনও উন্নয়ন হয়নি৷ এখানে একটা ভাল হাসপাতাল নেই৷ মানুষকে বোকা বানানোর জন্য উত্তরকন্যা তৈরি করা হয়েছে৷ এখানকার মানুষের সার্বিক উন্নয়নের জন্যই আমি পৃথক উত্তরবঙ্গের কথা বলছি৷ এখানকার মানুষ বাধ্য হয়েই এই দাবি তুলছেন৷'

    এ দিন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁয়ের বিরুদ্ধে তৃণমূলের তরফে আলিপুরদুয়ারে মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ সৌমিত্র অবশ্য নিজের দাবিতেই অনড় রয়েছেন৷ এ দিনও তিনি বলেন, পৃথক রাজ্যের দাবি যে কোনও নাগরিক তুলতে পারেন৷ সংবিধানই সেই অধিকার দিয়েছে৷ রাঢ়বাংলা, জঙ্গলমহল বঞ্চিত৷ আমরা এ নিয়ে আরও বৃহত্তর আন্দোলন করব৷ আমাদের উপরে জবরদখল করা হচ্ছে, সেটা আমরা মানব না৷' বিজেপি-র একের পর এক সাংসদ, বিধায়ক রাজ্য ভাগের কথা বলায় পাল্টা আক্রমণ করেছে তৃণমূলও৷ দলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, 'যতদিন না বিজেপি নেতারা সরাসরি দলের বিধায়ক, সাংসদদের এই বক্তব্য খণ্ডন করবেন, ততদিন ধরে নিতে হবে বাংলা ভাগই বিজেপি-র গোপন উদ্দেশ্য৷ তবে বিজেপি যতই চেষ্টা করুক না কেন, পাহাড় থেকে সাগর বাংলা অখণ্ড আছে এবং থাকবে৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: