• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Strand Road Fire: বিধ্বংসী আগুনে জ্বলছে নিউ কয়লাঘাটা বিল্ডিং, রেলের অনলাইন টিকিট বুকিং পরিষেবা সম্পূর্ণ বন্ধ

Strand Road Fire: বিধ্বংসী আগুনে জ্বলছে নিউ কয়লাঘাটা বিল্ডিং, রেলের অনলাইন টিকিট বুকিং পরিষেবা সম্পূর্ণ বন্ধ

বহুতলের ১৩ তলায় পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মূল কার্যালয়। অগ্নিকাণ্ডের জেরে রেলের অনলাইন টিকিট বুকিং সম্পূর্ণভাবে বন্ধ। পাশাপাশি উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের অনলাইন টিকিট বুকিংও বন্ধ।

বহুতলের ১৩ তলায় পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মূল কার্যালয়। অগ্নিকাণ্ডের জেরে রেলের অনলাইন টিকিট বুকিং সম্পূর্ণভাবে বন্ধ। পাশাপাশি উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের অনলাইন টিকিট বুকিংও বন্ধ।

বহুতলের ১৩ তলায় পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মূল কার্যালয়। অগ্নিকাণ্ডের জেরে রেলের অনলাইন টিকিট বুকিং সম্পূর্ণভাবে বন্ধ। পাশাপাশি উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের অনলাইন টিকিট বুকিংও বন্ধ।

  • Share this:

    #কলকাতা: ভয়াবহ আগুন স্ট্র্যান্ড রোডের বহুতলে। চার ঘণ্টা চেষ্টার পরেও এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি আগুন। আগুনে ৬ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে। যে বহুতলে আগুন লেগেছে তার ১৩ তলায় পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মূল কার্যালয়। অগ্নিকাণ্ডের জেরে রেলের অনলাইন টিকিট বুকিং সম্পূর্ণভাবে বন্ধ। পাশাপাশি উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের অনলাইন টিকিট বুকিংও বন্ধ।

    পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক কমল দেও দাস জানিয়েছেন, অনলাইন বুকিং পরিষেবা এক্কেবারে বন্ধ। পাওয়ার অফ করে দমকল কর্মীরা কাজ করছেন। ফলে সার্ভার বন্ধ। যার জেরে কলকাতা রিজিয়নের টিকিট বুকিং বন্ধ। অর্থাৎ, কলকাতা থেকে দিল্লি বা অন্য তবে ডাউনের অর্থাৎ কলকাতা থেকে দিল্লি বা কোথাও যাওয়ার টিকিট কাটতে পারবেন না  যাত্রীরা। তবে ফেরার টিকিট যে কোনও জায়গা থেকে কাটতে পারবেন উপভোক্তারা। পাওয়ার অন্য করলে তবেই সার্ভার কাজ করবে।

    মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক আরও বলেন, কখন পাওয়ার আসবে তা আগুন না নেভা পর্যন্ত বোঝা যাবে না। সেক্ষেত্রে আগুন নেভা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। রেল সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত যা পরিস্থিতি তাতে, আগামিকাল দুপুর পর্যন্ত পরিষেবা স্বাভাবিক হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। এ দিকে,  রেলের জনসংযোগ আধিকারিক আরও জানিয়েছেন, আগুন লাগার পরে অফিসের মধ্যে কেউ ছিলেন না।  তবে অগ্নিকান্ডের জেরে কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা আআহুন নিয়ন্ত্রণে আসার পরেই জানা যাবে। বর্তমানে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ করছে দমকলের ১৮টি ইঞ্জিন।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: