corona virus btn
corona virus btn
Loading

জিএসটি নিয়ে সংঘাতে কেন্দ্র-রাজ্য, ৫ রাজ্যের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে কড়া চিঠি মমতার

জিএসটি নিয়ে সংঘাতে কেন্দ্র-রাজ্য, ৫ রাজ্যের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে কড়া চিঠি মমতার

বিশ্বাস ভাঙছে কেন্দ্র। রাজ্যের প্রাপ্য থেকেও বঞ্চিত করা হচ্ছে, মন্তব্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রকে ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠিয়েছে আরও পাঁচ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

  • Share this:

#কলকাতা: জিএসটি ক্ষতিপূরণ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কড়া চিঠি মুখ্যমন্ত্রীর। বিশ্বাস ভাঙছে কেন্দ্র। রাজ্যের প্রাপ্য থেকেও বঞ্চিত করা হচ্ছে, মন্তব্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রকে ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠিয়েছে আরও পাঁচ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

জিএসটি ক্ষতিপূরণ দেওয়া নিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে রাজ্যের সংঘাত। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন, তামিলনাড়ুর পালানিস্বামী ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল, তেলেঙ্গনার কে চন্দ্রশেখর রাও-এর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে কড়া চিঠি লিখলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, জিএসটির ক্ষতিপূরণ না দেওয়ার ফলে রাজ্যগুলি কেন্দ্রের প্রতি বিশ্বাস হারাচ্ছে। পাশাপাশি নষ্ট হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোও।

কোভিড পরিস্থিতিকে দৈব দুর্বিপাক বলে উল্লেখ করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। নির্মলা জানান, এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের পক্ষে জিএসটি ক্ষতিপূরণ মেটানো সম্ভব নয়। রাজ্যকে ধার করে জিএসটি ক্ষতিপূরণ মেটানোর প্রস্তাব দেয় কেন্দ্র। যদিও কেন্দ্রস্তরে ঋণ নেওয়ার পক্ষে সওয়াল করেছে রাজ্যগুলি। এরপরই কেন্দ্রকে সাংবিধানিক দায়িত্ব মনে করিয়ে চিঠি দেন ৬ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন,

‘শ্রদ্ধেয় প্রধানমন্ত্রী,

জিএসটি চালুর পর রাজ্যগুলির ৭০ শতাংশ কর আদায়ের ক্ষমতা চলে গিয়েছে। এমনকী ভ্যাটও গিয়েছে। এতকিছু ছাড়ার একটাই শর্ত ছিল, রাজ্যগুলি ৫ বছর জিএসটি ক্ষতিপূরণ পাবে। কিন্তু তা দেওয়া হচ্ছে না। আপনাকে মনে করাতে চাই, গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আপনি জিএসটির বিরোধিতা করেছিলেন। ২০১৩ সালে প্রয়াত অরুণ জেটলি বলেন, বিজেপির জিএসটি বিরোধিতার একমাত্র কারণ ছিল ক্ষতিপূরণ নিয়ে তত্কালীন কেন্দ্রীয় সরকারকে বিশ্বাস করতে না পারা। এখন আমরা যখন জিএসটির ক্ষতিপূরণ পাচ্ছি না, তখন সেই কথাগুলোই কানে বাজছে। বিজেিপ সরকারের উপর বিশ্বাস হারাচ্ছে।’

এখানেই শেষ নয়, চিঠিতে মমতা এও লিখেছেন,  ‘১৪ মার্চও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেন জিএসটি ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তা দেওয়া হয়নি। অনেক রাজ্য কর্মীদের বেতনও দিতে পারছে না। মমতার পরামর্শ, কেন্দ্র কম সুদে ধার করতে পারে। সেভাবে ধার নিয়ে রাজ্যগুলিকে টাকা দিক কেন্দ্র।’

জিএসটি ক্ষতিপূরণ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দাবির বিরোধিতায় বিজেপি। এখন প্রশ্ন জিএসটি ক্ষতিপূরণ নিয়ে ছ’রাজ্যের বিরোধিতায় কি পিছু হঠবে কেন্দ্র? না কি সংঘাত আরও চরমে উঠবে?

Published by: Elina Datta
First published: September 2, 2020, 7:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर