নেতাজির ১২৫ জন্মজয়ন্তী বর্ষ এবার থেকে দেশনায়ক দিবস, বাঙালির নায়কের সম্মানে ঢালাও পরিকল্পনা মমতার

নেতাজির ১২৫ জন্মজয়ন্তী বর্ষ এবার থেকে দেশনায়ক দিবস, বাঙালির নায়কের সম্মানে ঢালাও পরিকল্পনা মমতার

মোদি সরকারের সেই পরিকল্পনাকে টেক্কা দিতে ঢালাও একগুচ্ছ কর্মসূচির ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী | স্কুলে স্কুলে এবার আজাদ হিন্দ বাহিনী, নেতাজীর নামে বিশ্ববিদ্যালয়-স্মৃতি সৌধ, নেতাজির ১২৫ জন্মজয়ন্তী বর্ষে স্বপ্ন দেখালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মোদি সরকারের সেই পরিকল্পনাকে টেক্কা দিতে ঢালাও একগুচ্ছ কর্মসূচির ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী | স্কুলে স্কুলে এবার আজাদ হিন্দ বাহিনী, নেতাজীর নামে বিশ্ববিদ্যালয়-স্মৃতি সৌধ, নেতাজির ১২৫ জন্মজয়ন্তী বর্ষে স্বপ্ন দেখালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

  • Share this:

    #কলকাতা: নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মজয়ন্তী ৷ ২১-এর লক্ষ্যে বাঙালি এই দেশনায়কের জন্মদিন নিয়ে কেন্দ্র রাজ্য টক্কর ৷ বাঙালির ভাবাবেগকে ছুঁতে নেতাজির জন্মজয়ন্তীকে এবছর বাড়তি গুরুত্ব দিয়েছে কেন্দ্র ৷ সারা বছর ধরেই উদযাপনের পরিকল্পনা কেন্দ্রের ৷ মোদি সরকারের সেই পরিকল্পনাকে টেক্কা দিতে ঢালাও একগুচ্ছ কর্মসূচি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৷ এবার থেকে ২৩ জানুয়ারি পালিত হবে দেশনায়ক দিবস হিসেবে নবান্ন থেকে ঘোষণা মমতার ৷ একইসঙ্গে ফের ২৩ জানুয়ারিকে জাতীয় ছুটির দিন বলে ঘোষণার দাবিতে সরব হন মুখ্যমন্ত্রী ৷

    ২৩ জানুয়ারি নেতাজি সুভাষ চন্দ্রের জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে শ্যামবাজারে পাঁচ মাথার মোড়ে নেতাজি মূর্তির পাদদেশ থেকে রেড রোড অবধি পদযাত্রার পরিকল্পনা রাজ্যের ৷ নেতৃত্বে থাকবেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ ঠিক সকাল ৯টায় সারা বাংলায় বাজবে সাইরেন ৷ সেই সাইরেনের ধ্বনির সঙ্গেই শুরু হবে নেতাজির জন্য পদযাত্রা ৷ রেড রোডে শেষ হবে পদযাত্রা ৷ এরপর থাকবে নেতাজি মূর্তিতে সম্মাননা প্রদর্শন পর্যায় ৷

    বেলা ১২টা ১৫ মিনিটে জন্মগ্রহণ করেছিলেন সুভাষ চন্দ্র বোস ৷ ঠিক সেই সময়ে গোটা রাজ্যজুড়ে সাইরেনও বাজবে। রাজ্যবাসী সহ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা বাঙালিদের কাছে তাই দেশনায়কের সম্মানে ওই সময় সকলে যেন ঘর থেকে শাঁখ বাজান, আর্জি মুখ্যমন্ত্রীর ৷ তিনি বলেন, ‘শাঁখ না বাজাতে পারলে উলুধ্বনি দিন ৷ মুসলিমরাও নেতাজির সম্মানে আজান দিকে পারেন ৷’

    বিধানসভা ভোটের আগে নেতাজির আবেগকে উস্কে দিয়ে ২৩ জানুয়ারিকে দেশনায়ক দিবস হিসেবে ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজারহাটে মনুমেন্ট থেকে স্কুলে স্কুলে আজাদ হিন্দ বাহিনী,নবান্নর সভাঘর থেকে নেতাজির ১২৫ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে একগুচ্ছ ঘোষণা করলেন তিনি।

    এদিন নবান্নে সভাঘরে নেতাজির জন্মজয়ন্তী উদযাপনে কর্মসূচির পরিকল্পনা নিয়ে অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, সুগত বসু, ফেলিক্স রাজ, অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র, ব্রাত্য বসু, শুভাপ্রসন্ন, রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত, জয় গোস্বামী সহ বিশিষ্টদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে আলোচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী ৷

    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুধু ২৩ জানুয়ারিরই নয়, বছরভর উদযাপনেরও বিভিন্ন পরিকল্পনা এদিন ঘোষণা করেন ৷ ২৬ জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবসে থাকবে নেতাজির জন্য বিশেষ ট্যাবলো ৷ ১৫ অগাস্টের পদযাত্রা জুড়েও থাকবেন নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস ৷ নেতাজির আদর্শকে বর্তমানের তরুণ প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য সুভাষ চন্দ্র বোসের রচিত ‘তরুণের স্বপ্ন’ স্কুলে আবশ্যিক পাঠ্য হিসেবে করার প্রস্তাব দেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ একইসঙ্গে নিউটাউনের কোনও এক জায়গায় নেতাজির সম্মানে আজাদ হিন্দ ফৌজ সৌধ তৈরির কথাও ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

    স্কুলে স্কুলে এবার আজাদ হিন্দ বাহিনী, বিশ্ববিদ্যালয় নেতাজীর নামে, নেতাজির ১২৫ জন্মজয়ন্তী বর্ষে স্বপ্ন দেখালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ এদিন সাংবাদিক বৈঠকে নেত্রী ঘোষণা করেন, কেন্দ্রের এনসিসি-এ আদলে স্কুলে স্কুলে এবার পড়ুয়াদের নিয়ে তৈরি হবে আজাদ হিন্দ বাহিনী ৷ একইসঙ্গে রাজ্য নেতাজির নামে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির কাজ শীঘ্র শুরু করবে বলেও জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

    Published by:Elina Datta
    First published: