Cyclone Yaas: বঙ্গোপসাগরে ফুঁসছে ঘূর্ণিঝড়, দ্রুত উদ্ধারকার্য শুরুর পরিকল্পনা রাজ্যের

ভয়ের নাম যশ। প্রস্তুতি নিচ্ছে রাজ্য।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইছেন কোনও ভাবেই প্রস্তুতিতে কোনও ফাঁক না রাখতে। তাঁর মতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে প্রথম কাজই হচ্ছে ক্ষতি হতে পারে এমন জায়গাগুলিতে আশ্রয়ের পাকা ব্যবস্থা করা।

  • Share this:

    #কলকাতা: আজ থেকে ঠিক এক বছর আগ গোটা বাংলার সাজানো গোছানো ছবিটা লন্ডভণ্ড করেছিল আমফান। বছর ঘুরতেই এবার আরও একবার চোখ রাঙাচ্ছে আরও একটি ঘূর্ণিঝড়। আবহবিদদের অনুমান, ২২ তারিখ ঝড়টি তৈরি হবে, গতি বাড়িয়ে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় আরও একবার তাণ্ডব চলতে পারে। এই অবস্থায় আমফানের অভিজ্ঞতাই রাজ্যের হাতের পাঁচ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইছেন কোনও ভাবেই প্রস্তুতিতে কোনও ফাঁক না রাখতে। তাঁর মতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে প্রথম কাজই হচ্ছে ক্ষতি হতে পারে এমন জায়গাগুলিতে আশ্রয়ের পাকা ব্যবস্থা করা।

    বুধবার মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় তিন জেলার প্রশাসনের সঙ্গে একটি বৈঠক করেন। এই বৈঠকে ফোনে যোগাযোগ রেখে প্রয়োজনীয় বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। মুখ্যমন্ত্রীর যুক্তি আমফানের অভিজ্ঞতাকে মাথায় রেখেই কাজ করতে হবে। তিনি স্পষ্ট নির্দেশ দেন, যেখানে যেখানে প্রয়োজন হবে সেখানে সেখানে বাসিন্দাদের আশ্রয় শিবিরে সরিয়ে আনতে হবে। আশ্রয়শিবিরে যাতে পর্যাপ্ত পরিমাণ খাবার, পানীয়জল, ওষুধের যোগান থাকে তা নিশ্চিত করার কথাও বলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    একই সঙ্গে তিনি পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতি মাথায় রাখার কথাও বলেছেন। এই কাজে নামলে বাধ্যতামূলক ভাবে যে স্যানিটাইজার এবং মাস্ক ব্যবহার করতে হবে, তাও বুঝিয়ে দেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর দাওয়াই, প্রয়োজনে আগে থেকেই মাস্ক-স্যানিটাইজার পাঠিয়ে দেওয়া হোক সাইক্লোনসেন্টারগুলিকে।

    উদ্ধার করতে হবে মৎস্যজীবীদেরও, এই মর্মেও প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেওয়া হয়। কোনও ট্রলার বা নৌকার সমুদ্রে যাওয়া বন্ধ করতে বলে হয়েছে। যাঁরা গিয়েছেন তাদের ফিরে আসতে বলা হয়েছে। সরকারি নির্দেশ নদীতে, উপকূলে যেসব মৎস্যজীবীরা রয়েছেন, দূরে গেলে ২৩মে-র মধ্য সবাইকে ফিরে আসতে হবে।হেলিকপ্টারে খতিয়ে দেখা হবে কোথায় কোথায় রয়েছেন তাঁরা। তারপর তাঁদের ফিরিয়ে আনার জরুরি ব্যবস্থা করা হবে। সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলির সরকারি অফিসারদের সব ছুটিই বাতিল করা হয়েছে।

    Published by:Arka Deb
    First published: