Cyclone Yaas Updates: দিঘা থেকে সুন্দরবনের মধ্যে আঘাত হানবে যশ? অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়, জারি সতর্কতা

প্রতীকী ছবি৷

আগামী ২৬ মে বিকেলের দিকে স্থলভাগে আঘাত হানতে পারে যশ (Cyclone Yaas)৷ সাধারণত অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষেত্রে হাওয়ার গতিবেগ থাকে ১২০ থেকে ১৬০ কিলোমিটারের মধ্যে৷

  • Share this:

 #কলকাতা: অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হয়ে সম্ভবত পশ্চিমবঙ্গ উপকূলেই আছড়ে পড়তে চলেছে যশ৷ দিঘা থেকে সুন্দরবনের মধ্যেই আঘাত হানতে চলেছে সে৷ এ দিন এমনই সতর্কতা জারি করল আলিপুর আবহাওয়া দফতর৷ পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী ২৬ মে বিকেলের দিকে স্থলভাগে আঘাত হানতে পারে যশ৷ সাধারণত অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষেত্রে হাওয়ার গতিবেগ থাকে ১২০ থেকে ১৬০ কিলোমিটারের মধ্যে৷ তবে যশের শক্তি ঠিক কতটা হবে তা আর দু' একদিনের মধ্যেই জানিয়ে দিতে পারবেন আবহবিদরা৷

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা গণেশ কুমার দাস জানিয়েছেন, আজ সকালেই পূর্ব মধ্যে বঙ্গোপসাগরের উপরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে৷ আগামিকালের মধ্যেই তা গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে৷ এর পর উত্তর এবং উত্তর পশ্চিম দিকে সরে গিয়ে েসটি ২৪ তারিখ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে৷ পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে৷

এর পর থেকেই আরও উত্তর এবং উত্তর পশ্চিম দিকে সরে ধীরে ধীরে শক্তি বাড়িয়ে ২৬ মে সকালে পশ্চিমবঙ্গ, বাংলাদেশ এবং ওড়িশা উপকূলের কাছে পৌঁছবে যশ৷ ২৬ তারিখ বিকেলেই পশ্চিমবঙ্গ এবং উত্তর ওড়িশা ও বাংলাদেশ উপুকূল পেরিয়ে যাবে এই অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়৷ আবহবিদরা জানাচ্ছেন, ক্রমশ ওড়িশা উপকূল থেকে এই ঘূর্ণিঝড়ের অভিমুখ সরে যাচ্ছে৷ ফলে পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের দিঘা থেকে সুন্দরবনের মধ্যেই তা আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা বেশি৷

আবহ দফতর থেকে সতর্ক করে বলা হয়েছে, যশের দাপটে ২৪ তারিখ থেকেই উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে বৃষ্টি শুরু হয়ে যাবে৷ কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে ২৫ তারিখ এবং ২৬ তারিখ ভারী থেকে অতি বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে৷ ২৬ তারিখ, বুধবার যশ আছড়ে পড়ার দিন বৃষ্টিপাতের পরিমাণ আরও বাড়বে৷ উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও ২৬ এবং ২৭ তারিখ বৃষ্টি হবে৷

হাওয়া অফিস থেকে জানানো হয়েছে, ২৫ তারিখ থেকেই যশের দাপটে উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ঘণ্টায় ৭০ কিলোমিটার গতিবেগে হাওয়া বইতে পারে৷ ২৬ তারিখ যশ আছড়ে পড়ার দিন তা ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটারে পৌঁছতে পারে৷

Biswajit Saha

Published by:Debamoy Ghosh
First published: