corona virus btn
corona virus btn
Loading

পরিষেবা নেই, তবু বিদ্যুতের বিল বেশি নেওয়ার অভিযোগ CESC-র বিরুদ্ধে, আন্দোলনে গ্রাহকরা

পরিষেবা নেই, তবু বিদ্যুতের বিল বেশি নেওয়ার অভিযোগ CESC-র বিরুদ্ধে, আন্দোলনে গ্রাহকরা

একাধিক গ্রাহকের অভিযোগ, তাঁদের থেকে বিদ্যুতের বিল বেশি নেওয়া হয়েছে। এই সব কিছুর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে সোমবার সঞ্জীব গোয়েঙ্কা"র বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখালেন কংগ্রেসের কর্মীরা।

  • Share this:

ABIR GHOSHAL

#কলকাতা: আমফানের প্রভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা নিয়ে ব্যাপক অভিযোগ জমা পড়েছে কলকাতায়। সিইএসসি'র বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন শহরের মানুষ। একাধিক জায়গায় বিদ্যুৎ খুঁটি উপড়ে পড়েছিল ঘূর্ণিঝড়ে। কোথাও কোথাও গাছ পড়ে যায়। তার জেরে চরম সমস্যায় পড়েন শহরের মানুষ। দিকে দিকে শুরু হয়ে যায় বিক্ষোভ। উত্তর থেকে দক্ষিণ লাগাতার অবরোধ চলে। রাজ্যের প্রশাসনিক মহল থেকেও সিইএসসি'র ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়।

তার মধ্যেই একাধিক গ্রাহকের অভিযোগ, তাঁদের থেকে বিদ্যুতের বিল বেশি নেওয়া হয়েছে। এই সব কিছুর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে সোমবার সঞ্জীব গোয়েঙ্কা"র বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখালেন কংগ্রেসের কর্মীরা।কংগ্রেসের ব্যানারে মহিলারা হ্যারিকেন নিয়ে বসে বিক্ষোভ দেখতে শুরু করেন আলিপুরে রমা প্রসাদ গোয়েঙ্কা সরণিতে। মহিলাদের অভিযোগ, টাকা বেশি আর পরিষেবা কম দিচ্ছে সিইএসসি। বারবার আবেদন জানিয়েও কোনও লাভ হচ্ছে না, তাই এক প্রকার বাধ্য হয়েই তাঁদের এ ভাবে রাস্তায় হ্যারিকেন নিয়ে বসে বিক্ষোভ দেখাতে হচ্ছে।

কংগ্রেসের সদস্যদের অভিযোগ, লকডাউনে বিদ্যুতের বিলে কোনও ছাড় দেওয়া হয়নি। প্রতি মাসে বিদ্যুতের বিল নেওয়া হয়েছে। এরপর আমফান ঝড়ের কারণে মানুষের আয়ে সমস্যা তৈরি হয়ে যায়। এরপরেও যদি না বিদ্যুতের বিলে ছাড় দেওয়া হয়, তা হলে মানুষের ওপর চাপ বাড়বে। আন্দোলনকারীদের অন্যতম সাইনা জাভেদ বলেন, সিইএসসি আধিকারিকদের কিছু করার নেই। যার করার আছে তিনি সিইএসসি'র মালিক সঞ্জীব গোয়েঙ্কা। তাই তার বাড়ির সামনে এসে আমরা এ ভাবেই প্রতিবাদ জানাচ্ছি।"

আন্দোলনকারীরা হুশিয়ারি দিয়েছেন, যদি তিন মাসের বিদ্যুতের বিলে ছাড় না দেওয়া হয়, তা হলে তাঁরা নবান্ন অভিযান করবেন। এ দিন বিক্ষোভকারীরা সঞ্জীব গোয়েঙ্কার বাড়ির সামনে বিদ্যুতের বিল পুড়িয়ে বিক্ষোভ দেখান। পোড়ানো হয় সঞ্জীব গোয়েঙ্কার কুশপুত্তলিকা। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তি হয় পুলিশের। বেশ কয়েকজন আন্দোলনকারীকে আটক করে আলিপুর থানার পুলিশ।

Published by: Simli Raha
First published: June 22, 2020, 5:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर