Home /News /kolkata /
CPIM Public Relation New Technique|| প্রতিবাদ নয় এ বার প্রতিরোধ! জনসংযোগে নতুন চিন্তা সিপিআইএমের ছাত্র সংগঠনের

CPIM Public Relation New Technique|| প্রতিবাদ নয় এ বার প্রতিরোধ! জনসংযোগে নতুন চিন্তা সিপিআইএমের ছাত্র সংগঠনের

CPIM Public Relation New Technique: মিশন প্রীতিলতা নামের এই কর্মসূচিতে প্রধানত সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত মার্শাল আর্ট, ক্যারাটে, জুডো জানা সদস্যরাই এখানে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। তবে লম্বা ট্রেনিং নয়। ছোট ছোট কোর্সে সহজ করে এ গুলো শেখানো হবে।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্যে নারী সুরক্ষার দাবি নিয়ে মাঝেমধ্যেই রাস্তায় নেমেছে সিপিএম। কোনও ঘটনা ঘটলে আন্দোলন করেছে। এবার একটু অন্য রাস্তায় হেঁটে মহিলাদের পাশে দাঁড়াতে চাইছে দল। মহিলাদের আত্মরক্ষার জন্য এ বার ক্যারাটে শেখাচ্ছে দলের ছাত্র সংগঠন এসএফআই। ইতিমধ্যেই উত্তর ২৪ পরগনা ও বাঁকুড়া জেলায় ক্যাম্প শুরু করা হয়েছে সংগঠনের তরফে। আস্তে আস্তে রাজ্য ব্যাপি এই রকম ক্যাম্প তৈরি করা হবে বলে সংগঠন সূত্রে খবর।

মিশন প্রীতিলতা নামের এই কর্মসূচিতে প্রধানত সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত মার্শাল আর্ট, ক্যারাটে, জুডো জানা সদস্যরাই এখানে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। তবে লম্বা ট্রেনিং নয়। ছোট ছোট কোর্সে সহজ করে এ গুলো শেখানো হবে বলে সংগঠন সূত্রে খবর। একই সঙ্গে মহিলাদের সাথে থাকা চুলের ক্লিপ, কাটা কী ভাবে আত্মরক্ষায় কাজে লাগানো যায় সেটাও শেখানো হচ্ছে এই ক্যাম্পগুলিতে।

আরও পড়ুন: ব্লাড ক্যান্সারের বিরুদ্ধে কঠিন লড়াই! নলহাটির স্কুলের নতুন শিক্ষিকা সোমা কোথায় চিকিৎসা করিয়েছেন?

সংগঠনের রাজ্য কমিটির সদস্য আকাশ কর বলেন, "সারা রাজ্যে আমরা দেখেছি মেয়েদের ওপর অত্যাচার ক্রমশ বাড়ছে। অথচ রাজ্য সরকারের কোনও হেলদোল নেই। যোগ্যতাও নেই এসব ঠেকোনোর। কারণ শাসকদলের আশ্রিত দুষ্কৃতকারীরাই এসব করছে। তাই আমরা এসএফআই থেকে ঠিক করেছি রাস্তার লড়াই যেমন চলবে তেমনই আমরা ছাত্রীদের আত্মরক্ষার পাঠ শেখাবো। মিশন প্রীতিলতা নামে আত্মরক্ষা শেখানোর জন্য একটি কোর্স করানো হচ্ছে। আমরা রাস্তায় থেকে সরকারকে অনেকবার নারীদের নিরাপত্তার জন্য বলেছি। কিন্তু সরকার ব্যর্থ হয়েছে। আমরা এখন ছাত্রীদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছি। যাতে তাঁরা নিজেরা নিজেদের সুরক্ষা দিতে পারে।"

আরও পড়ুন: ফলাফলে খুশি নয়, খাতা পুনর্মূল্যায়ন করতে চায় মাধ্যমিকে নবম সৌরথ দে

সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য বলেন, "পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে তৃনমূল আমলে অরাজকতা, ধর্ষকদের বাড়বাড়ন্ত, সমাজবিরোধীদের বাড়বাড়ন্ত হয়েছে। ছাত্রীরা, নারীরা বিকৃত মানসিকতার শিকার হচ্ছেন। শাসকদলের ছত্রছায়ার থেকে এ ধরণের গুন্ডামী, অসভ্যতার সুযোগ পেয়ে যাচ্ছে সমাজবিরোধীরা বারংবার। নারী নির্যাতনে আমাদের রাজ্য এক নম্বর হয়ে গিয়েছিলো তা সত্ত্বেও শাসকদলের হুঁশ ফেরেনি। বরং দুষ্কৃতীদের নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছিল। ফলত আমরা এসএফআই-এর পক্ষ থেকে এই ধরনের উদ্যোগ নিয়েছি ছাত্রীদের জন্য সেলফ ডিফেন্স ক্যাম্প। যেখানে তাঁরা আত্মরক্ষার পদ্ধতিগুলো শিখবে। সমাজবিরোধীদের সবক শেখানোর পদ্ধতিগুলে শিখবে। এর আগে উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল এখন সেই জেলা ছাপিয়ে বাঁকুড়া-সহ আরও বেশকিছু জায়গায় প্রসারিত হয়েছে। আমরা নিশ্চিত এই ক্যাম্প সামগ্রিক ভাবে কার্যকরী হবে।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশের মতে, বিধানসভা নির্বাচনে ভরাডুবির পর থেকে ভেঙে পড়া সংগঠন গোছাতে চাইছে সিপিএম। আর এর জন্য ছাত্রযুব সংগঠনকে সামনের দিকে এগিয়ে আনা হয়েছে। করোনা আবহে রেড ভলেন্টিয়াররা মানুষের মন জয় করার জন্য বেশকিছু পদক্ষেপ করছে। এরপর কখনও স্পোকেন ইংলিশ শেখানো, কখনও পাঠশালা খোলা, কখনও ক্যারাটে শেখানোর কাজে এগিয়ে এসে জনসংযোগ বাড়াতে চাইছে সিপিএমের ছাত্রযুব সংগঠন। বিশেষ করে জেলাতে সেই কর্মসূচি করে পঞ্চায়েত নির্বাচনে ফসল তুলতে চাইছে দল।

UJJAL ROY

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Cpim

পরবর্তী খবর