Home /News /kolkata /

Kolkata Covid 19 Awareness: শিয়রে সংক্রমণ জেনেও মাস্ক পরতে তীব্র অনীহা কলকাতার

Kolkata Covid 19 Awareness: শিয়রে সংক্রমণ জেনেও মাস্ক পরতে তীব্র অনীহা কলকাতার

সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাস্তাঘাট কিংবা বাজারে দেখা যাচ্ছে,প্রচুর মানুষ মাস্ক ছাড়া ঘুরে বেড়াচ্ছেন

সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাস্তাঘাট কিংবা বাজারে দেখা যাচ্ছে,প্রচুর মানুষ মাস্ক ছাড়া ঘুরে বেড়াচ্ছেন

Kolkata Covid 19 Awareness: সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাস্তাঘাট কিংবা বাজারে দেখা যাচ্ছে,প্রচুর মানুষ মাস্ক ছাড়া ঘুরে বেড়াচ্ছেন। কেউ আবার গালের নিচে মাস্ক ঝুলিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

  • Share this:

কলকাতা : করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে মানুষের মাস্ক ব্যবহারের প্রবণতা বেড়েছে (coronavirus third wave)। কিন্তু মাস্ক ব্যবহারের অভ্যাস এখনও গড়ে ওঠেনি। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাস্তাঘাট কিংবা বাজারে দেখা যাচ্ছে,প্রচুর মানুষ মাস্ক ছাড়া ঘুরে বেড়াচ্ছেন। কেউ আবার গালের নিচে মাস্ক ঝুলিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।নিঃশ্বাসে বিষ আস্তে আস্তে যে,বিষাক্ত হয়ে উঠেছে, তা জেনেও সাধারণ মানুষ এখনও অবহেলা করেই চলেছেন (Kolkata Mask Usage)।

আরও পড়ুন : তাঁর মতকে সমর্থন, চিকিৎসক কুণাল সরকারকে ধন্যবাদ জানালেন অভিষেক

সোমবার বেলা তিনটে নাগাদ কলকাতার পোস্তা থানা, পোস্তা বাজার এলাকায় মাস্ক নিয়ে ধরপাকড় শুরু হয়। পুলিশের দল যখন বাজারের এ গলি থেকে ও গলি নজরদারি চালাচ্ছিল, সেই সময় পুলিশকে দেখে , বেশিরভাগ মানুষ মুখে মাস্ক লাগাতে শুরু করে। এমন প্রচুর মানুষকে দেখা যায় যাঁরা মুখোমুখি বসে কেনাবেচার গল্প কিংবা সুখ-দুঃখের গল্প করছিলেন। তাঁদের মুখে মাস্ক ছিল না। ওই সুখ দুঃখের ভাগ নিতেই মাঝখানে পুলিশ প্রবেশ করে৷ রীতিমত পুলিশ আটক করে মাস্কহীন লোকগুলোকে।

আরও পড়ুন : নমুনা পরীক্ষা কমতেই অনেকটা কমল আক্রান্তের সংখ্যাও! কমল না উদ্বেগ

যে ভাবে করোনার সংক্রমণ দিনের পর দিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে, সেই কথা মাথায় রেখেই পুলিশের তরফে সোমবারের এই অভিযান। অভিযান চালিয়ে পুলিশ এ দিন মোট ২৫ জনকে আটক করেছে।  বেশ কয়েক দিন ধরে পুলিশ পোস্তা এলাকায় অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু লোককে মাস্ক না পরার অপরাধে গ্রেফতার করেছে।  সঙ্গে পোস্তা চার রাস্তার মোড়ে, রীতিমতো টেবিল পেতে থানার ওসি পৃথ্বীরাজ ভট্টাচার্য ও তাঁর অফিসার ,কনস্টেবলরা মিলে,মাস্ক,স্যানিটাইজার বিতরণ করেন।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Coronavirus, COVID19

পরবর্তী খবর