corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজ্যে গ্রেফতার ১৮৪, সতর্ক করা হয়েছে ৪৬৪ জনকে

করোনা নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজ্যে গ্রেফতার ১৮৪, সতর্ক করা হয়েছে ৪৬৪ জনকে

রাজ্য পুলিশের হিসেব বলছে, সোশ্যাল মিডিয়াতে ও লোকমুখে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এখনও পর্যন্ত ১৮৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা নিয়ে ভুয়ো খবর ও গুজব ছড়িয়ে মানুষকে অযথা আতঙ্কিত করলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আগেই ঘোষণা করেছিল সরকার। রাজ্য পুলিশের হিসেব বলছে, সোশ্যাল মিডিয়াতে ও লোকমুখে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এখনও পর্যন্ত ১৮৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একই অভিযোগে এখন পর্যন্ত মোট মামলা হয়েছে ২৪০টি। ভিত্তিহীন খবর ও তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে সতর্ক করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৪৬৪ জনকে।

রাজ্য পুলিশ সূত্রে খবর, করোনা নিয়ে ফেসবুক বা ট্যুইটারের মতো সোশ্যাল মিডিয়াতে কেউ কোনও ভিত্তিহীন খবর বা গুজব রটিয়ে দিচ্ছে কিনা সেদিকে প্রথম থেকেই কড়া নজর রাখা হয়েছে। কারণ সামান্য খবর থেকেই মানুষের মধ্যে অযথা আতঙ্ক তৈরি হতে পারে। বিভিন্ন এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত হতে পারে। তাই এই ভুয়ো খবর রুখতেই প্রশাসনের এই নজরদারি।

রাজ্য পুলিশ সূত্রে খবর, কেউ সোশ্যাল মিডিয়াতে কোনও গুজব রটাচ্ছে কিনা তা দেখতে প্রথমে সোশ্যাল মিডিয়ায় নজর রাখা হচ্ছে। তার পাশাপাশি কে বা কারা সেই ভুল খবর ছড়াচ্ছে তাদেরকেও খুঁজে বের করা হচ্ছে। মোবাইল বা কম্পিউটারের আইপি অ্যাড্রেসের মাধ্যমে তাদের খুজে বের করা হচ্ছে। তারপর কী ধরণের ভুয়ো খবর ছড়ানো হয়েছে তার গুরুত্ব বুঝে প্রয়োজনে গ্রেফতার করা হচ্ছে। নাহলে সতর্ক করে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। রাজ্য পুলিশের বক্তব্য, এক্ষেত্রে কী অভিসন্ধি নিয়ে সেই খবর ছড়ানো হয়েছিল তা ভালোভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদি কোনও অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে খবর ছড়ানো হয়ে থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। অনেকে কিছু না বুঝেই শুধু লোকমুখে শুনে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেন। কেবলমাত্র তাদেরকেই সতর্ক করে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে।

তবে এখানেই শেষ নয়, যাদের সতর্ক করে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে তারা পরবর্তীতে এ ধরনের কোনও কাজ আবার করলে তাদেরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে।

রাজ্য পুলিশের এক কর্তা বলেন, "সাধারণ একটি গুজব থেকেই মানুষ অযথা আতঙ্কিত হয়ে পড়তে পারে কিংবা এলাকায় অশান্তি সৃষ্টি হতে পারে। তাই সোশ্যাল মিডিয়াতে নজরদারি চালানো এখন অত্যন্ত জরুরি। লাগাতার নজরদারিতে ধরনের গুজব ছড়ানোর প্রবণতা বেশ খানিকটা কমেছে।"

SUJOY PAL

Published by: Ananya Chakraborty
First published: May 16, 2020, 10:07 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर