• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • চার মাসের কুহেলির মৃত্যুর ঘটনার শুনানিতে চিকিৎসক ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কথায় মিলল অসঙ্গতি

চার মাসের কুহেলির মৃত্যুর ঘটনার শুনানিতে চিকিৎসক ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কথায় মিলল অসঙ্গতি

File Photo

File Photo

চিকিৎসক মহেশ গোয়েঙ্কার নির্দেশেই ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল কুহেলিকে। মেডিক্যাল কাউন্সিলে স্বীকার করলেন অ্যাপোলের অন্য চিকিৎকরা। দাবি কুহেলির বাবার ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: চিকিৎসক মহেশ গোয়েঙ্কার নির্দেশেই ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল কুহেলিকে। মেডিক্যাল কাউন্সিলে স্বীকার করলেন অ্যাপোলের অন্য চিকিৎকরা। দাবি কুহেলির বাবার ৷ অ্যাপোলোয় চার মাসের কুহেলি চক্রবর্তীর মৃত্যুর ঘটনার শুনানি চলছে মেডিক্যাল কাউন্সিলে। আজ তলব করা হয়েছিল তিন চিকিৎসককে। চিকিৎসক ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কথার অসঙ্গতিতে ক্ষুব্ধ কাউন্সিল।

    ২০১৭ -র  ১৯ এপ্রিল । অ্যাপোলোয় মৃত্যু হয় চার মাসের কুহেলি চক্রবর্তীর। অ্যাপোলোর বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ তোলে পরিবার ৷ প্রশ্ন ওঠে ডাক্তারদের ভূমিকা নিয়ে। স্বাস্থ্য কমিশন ও মেডিক্যাল কাউন্সিলে অভিযোগ করে পরিবার। মেডিক্যাল কাউন্সিলে চলছে শুনানি। বৃহস্পতিবার চতুর্থ শুনানিতে তলব করা হয়েছিল চিকি‍ৎসক মহেশ গোয়েঙ্কা, সুভাষ তেওয়ারি ও সিস্টার-ইন-চার্জ বৈশালী শ্রীবাস্তবকে। তলব করা হলেও আসেননি সিইও রানা দাশগুপ্ত। হিয়ারিং শেষে, কুহেলির বাবার দাবি, চিকিৎসক মহেশ গোয়েঙ্কার নির্দেশেই যে ইনজকশন দেওয়া হয়েছিল কুহেলিকে, তা স্বীকার করেছেন অন্য চিকিৎসকরা{

    তৃতীয় শুনানিতে সুভাষ তেওয়ারি জানিয়েছিলেন তিনি ইনজেকশন দিয়েছিলেন ৷ তখন ডিপার্টমেন্টের ইনচার্জ ছিলেন মহেশ গোয়েঙ্কা ৷ বৃহস্পতিবার সুভাষ তেওয়ারি জানান, মহেশ গোয়েঙ্কার নির্দেশেই দেওয়া হয় ইনজেকশন ৷

    মহেশ গোয়েঙ্কার পালটা দাবি, তিনি ঘটনার সময়ে ইনচার্জ ছিলেন না। তাঁর নির্দেশে কোনও ইনজেকশন দেওয়া হয়নি।  পরস্পরের কথার এই অসঙ্গতিতে খুশি নয় কাউন্সিল।  ৭ দিনের মধ্যে চিকিসক ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে তাঁদের বয়ান লিখিত আকারে জমার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ৷ ৭ দিনের মধ্যেই ফের ডাকা হবে তাঁদের ৷

    ভুল যে একটা হয়েছিল, ক্রমশই তা স্পষ্ট হচ্ছে। নিজেদের বাঁচাতে ব্যস্ত চিকিৎসকরাও। লিখিত আকারে সব পক্ষের বক্তব্য জানার পরই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে মেডিক্যাল কাউন্সিল।
    First published: