West Bengal Election 2021: দ্বিতীয় দফায় আরও ৩০, Nandigram সহ কোথায় কে এগিয়ে, কী বলছে লোকসভার ফল?

West Bengal Election 2021: দ্বিতীয় দফায় আরও ৩০, Nandigram সহ কোথায় কে এগিয়ে, কী বলছে লোকসভার ফল?

প্রতীকী ছবি৷

চারটি জেলায় ভোট হবে বৃহস্পতিবার৷ তার মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা, দুই মেদিনীপুর এবং বাঁকুড়া৷

  • Share this:

    #কলকাতা: নন্দীগ্রাম সহ রাজ্যের আরও তিরিশটি আসনে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফায় ভোটগ্রহণ৷ চারটি জেলায় ভোট হবে বৃহস্পতিবার৷ তার মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা, দুই মেদিনীপুর এবং বাঁকুড়া৷ দ্বিতীয় দফায় যে তিরিশটি আসনে ভোট হবে, লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলের নিরিখে তার মধ্যে ১৮টি আসনে এগিয়ে রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ ১২টি আসনে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ এক নজরে দেখে নেওয়া যাক লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী এই চার জেলার তিরিশটি কেন্দ্রে কোন আসনে কে এগিয়ে-

    দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা

    বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হচ্ছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণাতে৷ ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণাতেও বিজেপি-র ভোট প্রাপ্তির হার বাড়লেও এই জেলার ৩১টি বিধানসভা আসনেই এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷ বৃহস্পতিবার জেলার চারটি আসনে ভোটগ্রহণ৷

    গোসাবা- তৃণমূল কংগ্রেস এগিয়ে ছিল ২৯,২৮৬ ভোটে৷ তবে বিজেপিও ৭২ হাজারের বেশি ভোট পেয়েছিল এই কেন্দ্রে৷

    পাথরপ্রতিমা- তৃণমূল এগিয়ে ছিল ৩৫,৭৭৯ ভোটে৷ বিজেপি পেয়েছিল ৭৭ হাজারের কিছু বেশি ভোট৷

    কাকদ্বীপ- এই কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী রাজ্যের মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরা৷ লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে এই কেন্দ্রে ১৬,৫৭৭ ভোটে এগিয়ে রয়েছে তৃণমূল৷

    সাগর- এই কেন্দ্র থেকে ৩২,০১২ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷

    পূর্ব মেদিনীপুর দ্বিতীয় দফায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলার আরও ৯ আসনে ভোট৷ বলা বাহুল্য, তার মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ নন্দীগ্রাম৷ পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় মোট ১৬টি বিধানসভা রয়েছে৷ লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলের নিরিখে তার মধ্যে ১৪টিতে এগিয়ে ছিল তৃণমূল, ২টিতে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    নন্দীগ্রাম- দ্বিতীয় দফায় গোটা দেশের নজরে এই কেন্দ্র৷ ২০১৬ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিটে জয়ী হয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী৷ ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের নিরিখেও ৬৮,২৬৮ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷

    তমলুক- তৃণমূল এগিয়ে ছিল ৬,৫৪৮ ভোটে৷ শতাংশের নিরিখে তৃণমূল পেয়েছিল ৪৩.২২ শতাংশ ভোট, বিজেপি পেয়েছিল ৪০.২০ শতাংশ৷

    পাশকুড়া পূর্ব- বিজেপি-র থেকে তৃণমূল এগিয়ে ছিল ৭,৩৮০ ভোটে৷

    পাশকুড়া পশ্চিম- পূর্ব মেদিনীপুরের এই কেন্দ্রটিতে লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে ২,৪৪৫ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    ময়না- এই কেন্দ্রে এবার বিজেপি-র প্রার্থী প্রাক্তন ক্রিকেটার অশোক দিন্দা৷ লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে অবশ্য এই কেন্দ্রে ১২,৩৮৩ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷

    নন্দকুমার- তৃণমূল কংগ্রেস এগিয়ে ছিল ১৫,৩৫৮ ভোটে৷

    মহিষাদল- তৃণমূল এগিয়ে ছিল ১৬,৯১৬ ভোটে৷

    হলদিয়া- লোকসভা ফলের নিরিখে বিজেপি-র থেকে অনেকটাই এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷ ব্যবধান ছিল ৬৩,৮২১৷

    চণ্ডীপুর- এই কেন্দ্রে এবার তৃণমূলের তারকা প্রার্থী অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী৷ লোকসভা নির্বাচনের ফলের নিরিখে চণ্ডীপুরে তৃণমূল এগিয়ে ছিল ১৫,৪৬৩ ভোটে৷

    পশ্চিম মেদিনীপুর পশ্চিম মেদিনীপুরে মোট ১৫টি বিধানসভা কেন্দ্র রয়েছে৷ লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী তৃণমূল ৮টি আসনে এগিয়ে থাকলেও বাকি সাতটিতে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ দ্বিতীয় দফায় পশ্চিম মেদিনীপুরের ৯টি আসনে বৃহস্পতিবার ভোটগ্রহণ৷

    খড়্গপুর সদর- বিজেপি-র তারকা প্রার্থী হিরণ চট্টোপাধ্যায়ের পরীক্ষা এই কেন্দ্রে৷ ২০১৬ সালে এই কেন্দ্র থেকেই জিতেছিলেন বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের ফলেও এই কেন্দ্র থেকে ৪৫,১৩৩ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    নারায়ণগড়- সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রের প্রাক্তন কেন্দ্র৷ যদিও ২০১৬ সালেই এই কেন্দ্র হাতছাড়া হয় বামেদের৷ তবে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী, নারায়ণগড়ে ৮,৭৫০ ভোটে এগিয়ে বিজেপি৷

    সবং- এই কেন্দ্র থেকে এবার ফের তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে লড়ছেন মানস ভুঁইয়া৷ গত লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী এই কেন্দ্রে ৬,১৭০ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷

    পিংলা- তৃণমূল, বিজেপি এবং কংগ্রেস৷ পশ্চিম মেদিনীপুরের এই কেন্দ্রে এবার জেলায় দলের তিন সভাপতিই প্রার্থী হয়েছেন৷ লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী, এই কেন্দ্রেও এবার হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হওয়ার কথা৷ কারণ লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী এই কেন্দ্রে মাত্র ১৬৯৮ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷

    ডেবরা- এই কেন্দ্রে এবার প্রাক্তন দুই আইপিএস ভারতী ঘোষ ও হুমায়ুন কবীরের লড়াই৷ লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী, ডেবরায় বিজেপি এগিয়ে ছিল ৪,০১৯ ভোটে৷

    দাসপুর- লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী তৃণমূল এগিয়ে ৯,৯৪০ ভোটে৷

    ঘাটাল- লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী বিজেপি-র থেকে তৃণমূল এগিয়ে ছিল ৫,৮৬৬ ভোটে৷

    চন্দ্রকোনা- তৃণমূল কংগ্রেস এগিয়ে ছিলে ৩,৬৩১ ভোটে৷ ফলে এই কেন্দ্রেও যথেষ্ট কঠিন লড়াই হওয়ার কথা৷

    কেশপুর- রাজ্য রাজনীতিতে পরিচিত নাম কেশপুরে লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী যথেষ্ট স্বস্তিতে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷ বিজেপি-র সঙ্গে শাসক দলের ব্যবধান ছিল ৯২,০৭৮ ভোটের৷

    বাঁকুড়া

    লোকসভা নির্বাচনের ফলের নিরিখে বাঁকুড়ার ১২টি বিধানসভাতেই এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ বৃহস্পতিবার জেলার ৮টি আসনে ভোটগ্রহণ৷

    তালডাংরা- লোকসভা নির্বাচনের ফলের নিরিখে তৃণমূলের তুলনায় বিজেপি এগিয়ে ছিল ১৭,২৬৮ ভোটে৷

    বাঁকুড়া- এই কেন্দ্র থেকে এবার তৃণমূলের প্রার্থী টলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা সায়ন্তিকা ভট্টাচার্য৷ লোকসভা নির্বাচনের ফলের নিরিখে অবশ্য বাঁকুড়া কেন্দ্র থেকে ১৭,২৬৮ ভোটে এগিয়ে গিয়েছিল বিজেপি৷

    বড়জোড়া- বিজেপি এগিয়ে ছিল ১১,৬২০ ভোটে৷

    ওন্দা- লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী বিজেপি এগিয়ে ছিল ২৬,৩৭৩ ভোটে৷

    বিষ্ণুপুর- এই কেন্দ্র থেকেও লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী ২২,৮১৮ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    কোতুলপুর- লোকসভার ফল অনুযায়ী, ৯০৯৯ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    ইন্দাস- এই কেন্দ্র থেকে ১৩,৫৯৩ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    সোনামুখী- লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী, বিজেপি এগিয়ে ছিল ২৩,৮৩৫ ভোটে৷

    (তথ্য়সূত্র- জনাদেশ, লেখক- বিশ্বনাথ চক্রবর্তী)

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: