খাস কলকাতায় থানায় আত্মঘাতী কনস্টেবল, মাথা ফুঁড়ে ছাদে বিঁধল বুলেট

খাস কলকাতায় থানায় আত্মঘাতী কনস্টেবল, মাথা ফুঁড়ে ছাদে বিঁধল বুলেট

  • Last Updated :
  • Share this:

     #কলকাতা: খাস কলকাতায় থানার ভিতরেই সার্ভিস রাইফেল থেকে গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করলেন কনস্টেবল। নিহত ভৈরব ওঁরাও ফুলবাগান থানায় কর্মরত ছিলেন। ডিউটিতে যোগ দেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই থুতনিতে রাইফেল ঠেকিয়ে গুলি চালান তিনি। কী কারণে আত্মহত্যা তা নিয়ে ধোঁয়াশা দেখা দিয়েছে।

    গত দেড় বছর ধরে ফুলবাগান থানায় কর্মরত ছিলেন পূর্ব বর্ধমানের কালনার রথতলার বাসিন্দা ভৈরব ওঁরাও। শারীরিক অসুস্থতার কারণে মাস দু’য়েক ছুটি নেন তিনি। দিন পনেরো আগে যোগ দেন কাজে। শুক্রবার, সকাল ১১.৩০ নাগাদ থানায় কাজে যোগ দেন ভৈরব। এদিন তাঁর সেন্ট্রি হিসেবে ডিউটি ছিল। দুপুর ১.৪৫ নাগাদ মোবাইলে পরিবারের কারও সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় ভৈরবকে।

    কথা বলা শেষ হওয়ার পরেই থানার সেন্ট্রিদের জন্য নির্দিষ্ট ঘরে ঢোকেন ভৈরব। সেখানে নিজের থুতনিতে সার্ভিস রাইফেল ঠেকিয়ে গুলি চালিয়ে দেন।

    গুলির আওয়াজে ছুটে আসেন ফুলবাগান থানার অন্যান্য কর্মীরা। তাঁকে এনআরএসে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁকে মৃত বলে জানান চিকিৎসকরা। সার্ভিস রাইফেলের বুলেট ভৈরবের মাথা ফুঁড়ে ঘরের ছাদে গিয়ে লাগে। দেওয়ালে ছিটকে লাগে রক্ত। কিন্তু কেন আত্মহত্যা করলেন ভৈরব? তা নিয়েই ধোঁয়াশা দেখা দিয়েছে। আত্মহত্যার মিনিট পনেরো আগে পরিবারের কারও সঙ্গে কথা বলেন ভৈরব। সেখানেই কী লুকিয়ে রহস্য?

    First published:

    Tags: Constable suicide, Phoolbagan police station, Police Station